AssignmentExam Preparation

Class 9 Agriculture Assignment 2021 Answer

নবম শ্রেণীর কৃষি এসাইনমেন্ট ২০২১

Class 9 Agriculture 14th, 8th Week Assignment Answer (নবম শ্রেণীর কৃষি এসাইনমেন্ট এর সমাধান) is available here. Do you need answers of class Nine Agriculture 14th, 8th week questions? We have answered all the questions of Class 9 Agriculture Assignment for 14th, 8th week. This Krishi solution of the 14th, 8th week will be very useful for the students of class Nine. So read the full post to get Agriculture solution for 14th, 8th week of 9th class.

Class 9 Agriculture Assignment

Below we answer all classes agricultural class 9 assignments. Its assignments on all classes of agriculture have been published, the students have received but they cannot solve. Usually we don’t give much importance to agriculture because we think it is very easy. Yet we are usually looking for a solution to this question to help students. You need more than luck to succeed in the affiliate business. So I raised the question of the third week and sixth week of the agricultural education assignment in front of you.

Class 9 Agriculture 14th Week Assignment 2021

অ্যাসাইনমেন্ট: একটি পতিত জলাশয় ও মাছ চাষের জন্য আদর্শ পুকুর পর্যবেক্ষণ করলে এদের মধ্যে বসবাসকারী জীব সম্প্রদায় ও পরিবেশের মধ্যে যে পার্থক্য পরিলক্ষিত হয় তার উপর চিত্রসহ একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন কর

Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer

Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer

Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer

Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer Class 9 Agriculture 14th Week Assignment Answer

এসাইনমেন্ট সমাধান বা যেকোনো প্রয়োজনে-

Class 9 Agriculture 8th Week Assignment Question

There are two assignments to do for Agriculture for class 9. Here we give all weeks solution.

Class 9 Agriculture Assignment Question

শ্রেণি: ৯ম, এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজের ক্রমঃ এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ-২, অধ্যায় ও অধ্যায়ের শিরােনামঃ প্রথম অধ্যায়: কৃষি প্রযুক্তি;

পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত পাঠ নম্বর ও বিষয়বস্তুঃ ৪র্থ পরিচ্ছেদ: • বীজ সংরক্ষণ ক্লাশ ১: বীজ সংরক্ষণের শর্তসমূহ ক্লাশ ২: বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বীজ সংরক্ষণের গুরুত্ব ক্লাশ ৩: বীজ সংরক্ষণের পদ্ধতি;

৫ম পরিচ্ছেদঃ • খাদ্য সংরক্ষণ ক্লাশ ১: মাছের খাদ্য সংরক্ষরে প্রয়ােজনীয়তা ও সঠিক খাদ্য সংরক্ষণের পদ্ধতি। ক্লাশ ২: পশুপাখির খাদ্য সংরক্ষণের প্রয়ােজনীয়তা ও সংরক্ষণের পদ্ধতি।

৬ষ্ঠ পরিচ্ছেদঃ • মাছের সম্পূরক খাদ্য ক্লাশ ১: মাছের সম্পূরক খাদ্যের পরিচিতি ও । প্রয়ােজনীয়তা, সম্পূরক খাদ্যের উৎস ও উপকারিতা, মাছের পুষ্টিচাহিদা, ও সম্পূরক খাদ্য তালিকা।

ক্লাশ ২: মাছের সম্পূরক খাদ্য প্রস্তুত প্রণালী ও সম্পূরক খাদ্য প্রয়ােগ পদ্ধতি। ক্লাশ ৩: পশু পাখির সম্পূরক খাদ্য, বিভিন্ন সম্পূরক খাদ্য তৈরি ও প্রয়ােগ পদ্ধতি।  ক্লাশ ৪: গবাদি পশুকে অ্যালজি বা শেওলা খাওয়ানাে।

এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজঃ একজন ধানচাষী চটের বস্তায় ধানের বীজ সংরক্ষণ করে বীজতলায় বপন করলে খুব কম সংখ্যক বীজ অংকুরিত হয়। অন্যদিকে এক জন। দুগ্ধ খামার মালিক বছরব্যাপী তার গাভীগুলােকে কাচা ঘাস সরবরাহ করেন। কিন্তু হঠাৎ বন্যার কারণে তার গাভীগুলাে মারাত্মক খাদ্য সংকটে পড়ে। উপরােক্ত ধানচাষী ও দুগ্ধ খামারী কী কী ব্যবস্থা গ্রহণ করে বীজ ও ঘাস সংরক্ষণ করলে এ সংকটে পড়তেন না। এ ব্যাপারে তােমার মতামতসহ একটি প্রতিবেদন তৈরি কর।

নির্দেশনাঃ ১. শিক্ষার্থী পাঠ্যপুস্তকের প্রথম অধ্যায়ের চতুর্থ ও পঞ্চম পরিচ্ছেদের ধারণা নিবে। ২. প্রয়ােজনে অভিজ্ঞ কৃষকের ও দুগ্ধ খামারির পরামর্শ নিবে।  ৩. বাবা মায়ের পরামর্শ নিতে পারে।  ৪. বিষয় শিক্ষকের সাথে আলােচনা করতে পারে। ৫. প্রয়ােজনে ইন্টারনেটের সাহায্য নিবে। ৬. নিজ হাতে এ্যাসাইনমেন্ট লিখবে।

Class 9 Agriculture 8th Week Assignment Answer

বীজ সংরক্ষণের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হলাে বীজের গুণগতমান রক্ষা করা এবং যেসব বিষয় বীজকে ক্ষতি করতে পারে সেগুলাে সম্পর্কে সতর্ক হওয়া ও প্রতিরােধের ব্যবস্থা করা।

বীজ সংরক্ষণের পদ্ধতি

বাংলাদেশে বীজ সংরক্ষণের অনেক পদ্ধতি আছে। এক এক ফসলের বীজের জন্য এক এক রকম পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। যেমন দানাজাতীয় শস্য- ধান, গম, ভুট্টা, বীজের জন্য ধানগােলা, ডােল মাটির পাত্র, চটের বস্তা, পলিব্যাগ ও বেড ব্যবহার করা হয়। নিম্নে ফসল সংরক্ষণের পদ্ধতি সম্পর্কে আলােচনা করা হলাে।

বীজ শুকানাে ও চটের বস্তায় সংরক্ষণ

বীজ শুকানাে অর্থ হচ্ছে বীজ থেকে অতিরিক্ত আর্দ্রতা সরানাে এবং পরিমিত মাত্রায় আনা। আর্দ্রতার মাত্রা ১২ – ১৩% হলে ভালাে হয়। বাংলাদেশে বীজ শুকানাে হয় রােদে বা সূর্যতাপে। এই আদ্রর্তা ১২-১৩ শতাংশ নামাতে বীজগুলােকে প্রায় তিনদিন প্রখর রােদে শুকাতে হয়। ঠিকমতাে শুকিয়েছে কিনা তা বীজে কামড় দিয়ে পরখ করতে হবে। বীজে কামড় দেওয়ার পর যদি কট’ করে আওয়াজ হয় তবে মনে করতে হবে বীজ ভালােমতাে শুকিয়েছে। অতঃপর বীজগুলােকে চটের বস্তায় নিয়ে গােলা ঘরে রাখা হয়। বীজ পােকার উপদ্রব থেকে রক্ষার জন্য বীজের বস্তায় নিমের পাতা, নিমের শিকড়, আপেল বীজের গুঁড়া, বিশকাটালি ইত্যাদি মেশানাে হয় ।

এসাইনমেন্ট সমাধান বা যেকোনো প্রয়োজনে-

ধান গােলায় সংরক্ষণ

ধান সংরক্ষণের জন্য ধানের গােলা ব্যবহার হয়ে থাকে। ধানগােলার আয়তন বীজের পরিমাণের উপর নির্ভর করে নির্মাণ করা হয়। বীজ রাখার আগে ধানগােলার ভিতরে ও বাইরে গােবর ও মাটির মিশ্রণের প্রলেপ দিয়ে বীজ রাখার উপযুক্ত করতে হবে। বীজগুলাে এমনভাবে ভরতে হবে যেন এর ভিতর কোনাে বাতাস না থাকে। সেই জন্য ধানগােলার মুখ বন্ধ করে এর উপর গােবর ও মাটির মিশ্রণের প্রলেপ দিতে হবে।

ডােলে সংরক্ষণ

ডােল আকারে ধানগােলার চেয়ে ছােট। ডােল ধানগােলার চেয়ে কম ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন বীজ পাত্র। এটি বাঁশ বা কাঠ দিয়ে গােলাকার করে তৈরি করা হয়। ধানগােলার মতােই ডােলের বাইরে ও ভিতরে গােবর ও মাটির মিশ্রণের প্রলেপ দিয়ে ভালােভাবে শুকিয়ে বীজ রাখার উপযুক্ত করা হয়।

পলিথিন ব্যাগে সংরক্ষণ

আজকাল পাঁচ কেজি ধারণক্ষমতা সম্পন্ন পলিথিন ব্যাগে বীজ সংরক্ষণ করা হয়। এই ব্যাগ আরডিআরএস কর্তৃক উদ্ভাবিত। সাধারণ পলিথিনের চেয়ে বীজ রাখার পলিথিন অপেক্ষাকৃত মােটা হয়। শুকনাে বীজ এমনভাবে পলিথিন ব্যাগে রাখতে হবে যাতে কোনাে ফাঁক না থাকে এবং ব্যাগ থেকে সম্পূর্ণ বাতাস বেরিয়ে আসে। অতঃপর ব্যাগের মুখ তাপের সাহায্যে এমনভাবে বন্ধ করতে হবে যেন বাইরে থেকে ভিতরে। বাতাস প্রবেশের সুযােগ না থাকে।

মটকায় সংরক্ষণ

মটকা মাটি নির্মিত একটি গােলাকার পাত্র। গ্রাম বাংলায় এটি বহুল পরিচিত। এটি বেশ পুরু এবং মজবুত। মটকার বাইরে মাটি বা আলকাতরার প্রলেপ দেওয়া হয়। গােলা ঘরের মাচার নির্দিষ্ট স্থানে মটকা রেখে এর ভিতর শুকনাে বীজ পুরােপুরি ভর্তি করা হয়।  অতঃপর ঢাকনা দিয়ে বন্ধ করে উপরে মাটির প্রলেপ দিয়ে বায়ুরােধ করা হয়।

খাদ্য সংরক্ষণের প্রয়ােজনীয়তা

বাংলাদেশে প্রাপ্ত গবাদিপশুর খাদ্যের বেশির ভাগ কৃষি শস্যের উপজাত। এসব উপজাত শস্য মাড়াই বা শস্যদানা প্রক্রিয়াজাত করার পর পাওয়া যায়। বর্ষা মৌসুমে অনেক ঘাস উৎপাদিত হওয়ায় তা গবাদিপশুকে খাওয়ানাের পরও অতিরিক্ত থেকে যায়। আবার শীতকালেও অতিরিক্ত শিম গােত্রীয় ঘাস উৎপাদন হয়। তাই এই অতিরিক্ত ঘাস সংরক্ষণের প্রয়ােজন হয়। যখন ঘাসের অভাব হয় তখন এই সংরক্ষিত ঘাস গবাদিপশুকে সরবরাহ করা হয়। খাদ্য সংরক্ষণের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে খাদ্যকে রােগজীবাণু ও পচনের হাত থেকে রক্ষা করা । পশুপাখির দানাদার খাদ্যকে আর্দ্রতা নিয়ন্ত্রিত কক্ষে সংরক্ষণ করে বেশি দিন গুণাগুণ ঠিক রেখে সংরক্ষণ করা যায়। খাদ্যের আর্দ্রতা বেশি হলে এতে ছত্রাক জন্মায়। ছত্রাক জন্মানাে খাদ্য খেলে পশুপাখির দেহে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ফলে অনেক সময় পশু অসুস্থ হয়ে মৃত্যুবরণ করে।

খাদ্য সংরক্ষণের উপায়ের বিভিন্ন ধাপসমূহ

ক)

হে তৈরির মাধ্যমে সবুজ ঘাস সংরক্ষণ করা হয়। দ্বিতীয় অধ্যায়ে হে তৈরি সম্পর্কে আলােচনা করা হয়েছে। তবুও নিম্নে হে তৈরির বিভিন্ন ধাপগুলাে দেওয়া হলাে-

১। হে তৈরির জন্য শিম গােত্রীয় ঘাস যেমন, সবুজ খেসারি, মাসকলাই বেশি উপযােগী।

২। ফুল আসার সময় ঘাস কাটতে হয় ।

৩। ঘাস রােদে শুকিয়ে আর্দ্রতা ১৫-২০% এর মধ্যে রাখা হয়।

৪। ঘাস শুকিয়ে মাচার উপর স্তুপাকারে বা চালাযুক্ত ঘরে সংরক্ষণ করা হয়।

খ)

সাইলেজ তৈরির মাধ্যমে সবুজ ঘাস সংরক্ষণ করা হয়। দ্বিতীয় অধ্যায়ে সাইলেজ তৈরি সম্পর্কে আলােচনা করা হয়েছে। তবুও নিম্নে সাইলেজ তৈরির ধাপগুলাে দেওয়া হলাে-

১। সাইলেজ তৈরির জন্য ভুট্টা, নেপিয়ার, গিনি ঘাস বেশি উপযােগী।

২। ফুল আসার সময় রসাল অবস্থায় ঘাস কাটতে হয়।

৩। ঘাস কেটে বায়ুনিরােধক স্থানে বা সাইলাে পিটে রাখা হয়।

৪। সাইলাে পিটে ঘাস রাখার সময় ঝােলাগুড়ের দ্রবণ ছিটিয়ে দিতে হয়।

৫। তারপর বায়ু চলাচল বন্ধ করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

গ)

খড় তৈরির মাধ্যমে ফসলের বর্জ্য সংরক্ষণ করা হয়। আমাদের দেশে বেশিরভাগ কৃষক পরিবারে গরুর জন্য খাদ্য হিসাবে খড় ব্যবহার করা হয়। গরুকে দৈনিক ৩-৪ কেজি শুকনাে খড় দেওয়া হয়। এটি আঁশজাতীয় খাদ্য। নিম্নে খড় তৈরির ধাপগুলাে দেওয়া হলাে-

১। শস্যগাছ (ধান, ভুট্টা, খেসারি ইত্যাদি গাছ) ক্ষেত থেকে কাটার পর সেগুলাে মাড়াই করে শস্যদানা আলাদা করে ফেলা হয়।

২। বর্জ্য গাছগুলাে রােদে শুকিয়ে আর্দ্রতা ১৫-২০% এর মধ্যে এনে খড় তৈরি করা হয়।

৩। খড় সাধারণত গাদা করে রাখা হয়।

ঘ)

দানাশস্য ও তৈলবীজের উপজাত সংগ্রহ করে সংরক্ষণ করা হয়। ধান, গম, ভুট্টা, খেসারি, কলাই ইত্যাদি দানাশস্যের উপজাতসমূহ যেমন, চালের কুঁড়া, গমের ভুসি, ডালের খােসা, খৈল ইত্যাদি সংগ্রহ করে সংরক্ষণ করা হয়।

ঙ)

কারখানায় প্রক্রিয়াজাত করে খাদ্য সংরক্ষণ করা হয়। যেমন, পােস্ট্রির জন্য দানাদার খাদ্য প্রক্রিয়াজাত করে মেশ, পিলেট ও ক্রাম্বল ফিড তৈরি করা হয়।

Agricultural / Krishi Assignment

Annual examinations are usually held at the end of the year. But it is not possible to take it in this epidemic so this assignment method has considered by DSHE, so that the students are not harmed. The first and second week assignments are completed as per the syllabus of the agricultural class 9 assignment. Now the third week is underway. Among other subjects, Agriculture is also very important. So today we will discuss 6th, 7th, 8th, 9th class agriculture assignment. First we will say that Bangladesh is an agricultural dependent country. The main occupation of the people of this country is agriculture. 80% of the people of the country are engaged in agriculture. In our country, most of the students home are in villages, so most of the students father are engaged with agriculture. In this case, they have a very good idea about agricultural work. In spite of, I will give the idea to the students who have no idea about this through detailed discussion.

According to the notice of the Department of Secondary and Higher Education, this arrangement is to keep the students in the middle of their studies. Currently the whole world is affected by Corona. So, the whole world is facing a difficult situation today. As a result, the activities of the whole world have come to a halt. This has had a big impact on education. Which poses a major threat to students. As a result of the closure of educational institutions, students have turned their backs on their studies. As a result, many students are becoming uninterested in studies. Which is a very sad incident. So after a long period of running like this, the Ministry of Education has again introduced the assignment system to make the students study oriented. As a result, the Ministry of Education hopes that the students will return to their previous position. So from November 1 last year, Tara started this assignment system which will continue till December 15. The rush has divided it into 5 weeks. And different questions are asked each week. Students will read and write the answers to these questions at home and submit them to the school.

However, many students in our country do not know much about this new method. So I am trying to give them a full idea about this subject. Today we will discuss the questions of the third week of the agricultural class 9 assignment and help you with the correct answer to each question. So stay with us and of course don’t forget to share the post.

How to write an agricultural class 9 assignment

Can’t write an agricultural class 9 assignment? Do not understand how to write? Then let us help you. Agriculture is a very simple and interesting subject. Most of the agricultural education is learned at home. Such as animal husbandry, planting trees, growing crops on land, fish farming etc. So there is nothing to worry about writing an assignment on agriculture. If you want to write only class based assignments of the same type of agriculture of each class you need to discuss in a little detail.

Answer the question according to the number of each question. There are 4 sections of creative question which are Cognitive Q&A, Cognitive Q&A, Applied Q&A, Higher Skills Q&A. So you have to read and understand the question first or notice the instruction on the side of the question. Only answer all the questions that how much asked. There is no good in writing nonsense. This will only waste your time. Who doesn’t want to get good marks in exams and to get good marks are the things that students have to keep in mind. You have to do good handwriting, you have to write the spelling correctly, you have to write with points, it is better if you can start with the introduction to the question you are writing and end with the conclusion. Also be sure to give the question number you are writing.

বাংলায় পড়ুন

কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট এর সমাধান এখানে পাওয়া যাচ্ছে। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর শিক্ষা অধিদপ্তরের নোটিশ অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার মাঝে থাকার জন্য এই আয়োজন। বর্তমানে গোটা বিশ্ব করোনায় আক্রান্ত । যার ফলে পুরো পৃথিবী আজ কঠিন এক পরিস্থিতির মুখে পড়েছে। এতে করে গোটা বিশ্বের কার্যক্রম থমকে গেছে। এর বড় প্রভাব পড়েছে শিক্ষা ক্ষেত্রে। যা শিক্ষার্থীদের জন্য বড় ধরনের হুমকি স্বরূপ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ফলে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনার প্রতি মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। এর ফলে অনেক শিক্ষার্থী পড়াশোনার প্রতি অনাগ্রহী হয়ে পড়ছে। যা খুবই দুঃখজনক একটা ঘটনা। তো যাই দীর্ঘদিন এভাবে চলার পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় পুর্নরায় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা মূখি করতে অ্যাসাইনমেন্ট পদ্ধতি চালু করেছে। এর ফলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আশা করছে শিক্ষার্থী আবার আগের অবস্থান ফিরবে। তো গত নভেম্বর ১ তারিখ থেকে এই অ্যাসাইনমেন্ট পদ্ধতি চালু করেন যা চলবে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। তাড়া এটিকে 5টি সপ্তাহে ভাগ করেছে। এবং প্রতিটি সপ্তাহের ভিন্ন ভিন্ন প্রশ্ন দেওয়া হয়েছে। এসকল প্রশ্নের উত্তর শিক্ষার্থীরা বাসায় পড়াশোনা করে লিখে আনবে এবং স্কুলে জমা দিবে। তবে আমাদের দেশে অনেক শিক্ষার্থী এই নতুন পদ্ধতি সম্পর্কে তেমনি কিছু জানে না। তাই তাদের এই বিষয় সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ ধারণা দিতে আমি আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। আজ আমরা আলোচনা করবো কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট এর তৃতীয় সপ্তাহের প্রশ্ন নিয়ে এবং প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিয়ে আপনাদের সাহায্য করবো। তো আমাদের সাথে থাকুন এবং অবশ্যই পোষ্টটি শেয়ার করতে ভুলবেন না।

কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট

সাধারণত বছর শেষে বার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। কিন্তু এই মহামারিতে সেটি নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না তাই শিক্ষার্থীদের যাতে ক্ষতি না হয় সেদিকে বিবেচনা করে এই অ্যাসাইনমেন্ট পদ্ধতি। কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট এর সিলেবাস অনুযায়ী প্রথম এবং দ্বিতীয় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট  শেষ হয়েছে। এখন তৃতীয় সপ্তাহ চলমান রয়েছে। অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি কৃষি বিষয়টিও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। তাই আজ আমরা 6ষ্ঠ, 7ম, 8ম, 9ম শ্রেণির কৃষি নিয়ে আলোচনা করবো। প্রথমে আমরা বলে নিবে বাংলাদেশ কৃষি নির্ভর দেশ। এদেশের মানুষের প্রধান পেশা কৃষি। দেশের 80% লোক কৃষি পেশায় নিয়োজিত। আমাদের দেশে প্রায় শিক্ষার্থীর বাড়ি গ্রামে তাই বেশির ভাগ শিক্ষার্থীর পিতা কৃষি পেশায় নিয়োজিত। এক্ষেত্রে কৃষি কাজ সম্পর্কে তাদের বেশ ভাল ধারণা রয়েছে। তার পরেও যেসব শিক্ষার্থী এই সম্পর্কে ধারণা নেই তাদের আমি বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে ধারণা দিবো।

কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট কিভাবে লিখবেন

আপনি কি কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট লিখতে পারছেন না? কিভাবে লিখবেন বুঝতে পারছেন না? তাহলে চলুন আমরা আপনাকে সাহায্য করি। কৃষি খুবই সহজ এবং মজার একটি বিষয়। কৃষি শিক্ষা বিষয়ের যা যা পড়ানো হয় তার বেশির ভাগ আপনি বাড়ির বসেই করে। যেমন পশু পালন, গাছ লাগানো, জমিতে ফসল ফলানো, মৎস চাষ ইত্যাদি। তাই কৃষি বিষয়ে অ্যাসাইনমেন্ট লিখতে উদ্বেগের কিছু নাই। প্রতিটি শ্রেণির কৃষি একই ধরনের শুধু মাত্র শ্রেণি ভিত্তিক অ্যাসাইনমেন্ট লিখতে হলে আপনাকে একটু বিস্তারিত আলোচনা করতে হবে।

প্রতিটি প্রশ্নের নম্বর অনুযায়ী প্রশ্নের উত্তর লিখতে হবে। সৃজনশীল প্রশ্নের 4টি ধারা রযেছে সেগুলো হলো জ্ঞানমূলক প্রশ্নোত্তর, অনুধাবনমূলক প্রশ্নোত্তর, প্রয়োগমূলক প্রশ্নোত্তর, উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নোত্তর। তাই আগে প্রশ্নটি পড়ে বুঝতে হবে কিংবা প্রশ্নের পাশের লেখা গুলো খেয়াল করতে হবে। প্রশ্নে যা চাওয়া হয়েছে শুধুমাত্র সেটুকুর উত্তর দিতে হবে। অযথা কথা লিখে কোন ভাল নেই। এতে করে শুধু আপনার সময় নষ্ট হবে। পরীক্ষায় ভাল নম্বর কে না পেতে চায় আর ভাল নম্বর পেতে হলে শিক্ষার্থীকে যেসব বিষয় মাথায় রাখতে হবে তা হলো। হাতের লেখা ভাল করতে হবে, বানান সঠিক লিখতে হবে, পয়েন্ট দিয়ে লিখতে হবে, যে প্রশ্ন লিখছেন সেটাতে ভুমিকা দিয়ে শুরু করে উপসংহার দিয়ে শেষ করতে পারলে ভাল হয়। এছাড়াও যে প্রশ্ন লিখছেন সে প্রশ্নের নম্বর দিতে ভুলবেন না।

৯ম শ্রেণির কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

নিম্নে আমরা সকল শ্রেণির কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর দিলাম। সকল শ্রেণীর কৃষি বিষয়ে এর এসাইনমেন্ট প্রকাশ করা হয়েছে ছাত্রছাত্রীরা পেয়েছে কিন্তু তারা সমাধান করতে পারছিনা। সাধারণত কৃষি বিষয়টাকে আমরা বেশি গুরুত্ব দেয় না কারণ ভাবি যে এই বিষয় অনেক সহজ। তবুও আমরা সাধারণত এই প্রশ্নের সমাধান খুঁজছে ছাত্র-ছাত্রীদের সাহায্যের জন্য। প্রশ্নের সমাধান পাওয়ার আগে আপনাদের প্রশ্ন সম্পর্কে ধারণা থাকা উচিত। তাই আমি আপনাদের সামনে তৃতীয় সপ্তাহের কৃষি শিক্ষার অ্যাসাইনমেন্ট এর প্রশ্ন তুলে ধরলাম।

নবম শ্রেণির কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ‍

পরিশেষে আমরা বলতে পারি য়ে আমরা সকল শ্রেণির কৃষিশিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট এর দিতে পেরেছি। আপনি যে শ্রেণিতে অধ্যয়নরত সে ক্লাসের কৃষি অ্যাসাইনমেন্ট টি খুজে করে করুন এবং উত্তর লিখুন। উত্তর লিখতে বা আমাদের উত্তর পত্রে যদি কোন প্রকার ভুল পেযে থাকেন তাহলে অবশ্যই আমাদের জানান। আমরা সে সম্পর্কে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করবো। এবং সেটি সমাধান করবো। আপনাদের সকলের সহযোগিতায় আমরা সফলতা অর্জন করবো। যখন শিক্ষার্থীরা পড়বে তখনি তো দেশের উন্নতি করবে। তাই পড়াশোনার কোন বিকল্প নেই। যাইহোক চতুর্থ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর জন্য প্রস্তুতি নিন খুব দ্রুত তা আপনাদের সামনে হাজির করবো।  অবশেষে আমার এই পোষ্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

Related Articles

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *