Price

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম । ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২২

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ প্রাইস ২০২২। ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম 

প্রতিদিন ফ্রি ১০০ টাকা মোবাইল রিচার্জ করুন অথবা বিকাশে টাকা

Easy Way To Earn Money Online

মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করার বিভিন্ন উপায় জানুন

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২২ । ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ 

শীত বা গরম যেই সময়ের কথাই বলেন না কেন! মানুষের নিত্যদিনের সাথী এখন ফ্রিজআপনিও কি ফ্রিজের দাম ও ওয়ালটন ডিপফ্রিজের নতুন মডেল সম্পর্কে জানতে চান? আপনি কি ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের বর্তমান দাম কত জানতে চান? অথবা কিস্তিতে ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের কেনার নিয়ম জানতে চান?আপনাদের এইসকল প্রশ্নের সমাধান  ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের আপডেট দাম ২০২২ নিয়ে হাজির হয়েছিতাই ওয়ালটন ডিপফ্রিজের কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা ওয়ালটন ডিপফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ সম্পর্কে যানতে এই পোস্টটি পড়তে থাকুন। ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম।

দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের সাথে মানুষের ক্রয় ক্ষ্মতাও বাড়ছে তাই বেশির ভাগ মানুষ এখন বিভিন্ন মাধ্যমে ফ্রিজ কিনছেনফ্রিজ যারা কিনছেন তাদের ফ্রিজ কেনার আগে কিছু বিষয়ে সচেতন হতে হবেপ্রথমত, পরিবারের বা আপনার চাহিদা অনুযায়ী ফ্রিজের আকার নির্ধারন করে ফ্রিজ কেনা উচিতআপনার পরিবারের যদি সদস্য কম হয় তাহলে ছোট ফ্রিজ কিনবেনএবং পরিবারের যদি সদস্য বেশি হলে বড় ফ্রিজ কিনবেন 

 

আপনার পরিবার ছোট,বড়,মাঝারি যেমনই হোক না কেন, সব কিছুর সমধান আপনি দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন এর কাছে পাবেন সাশ্রয়ী মুল্যেসব ধরনের ও সব সাইজের ডিপ ফ্রিজ ওয়ালটন উৎপাদন করেতাই আমরা আজকে আলোচনা করবো ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের আপডেট দাম ২০২২ ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ নিয়ে। সকল তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত সাথে থাকুন 

 

 

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম কত? Walton Deep ফ্রিজের নতুন মডেল, আপডেট ডিপ ফ্রিজ প্রাইস ২০২২ 

ফ্রিজ কেনার কথা মাথায় আসলেই বেশ কিছু বিষয় নিয়ে মানুষকে দ্বিধায় পড়তে দেখা যায়প্রথম চিন্তা  হয় ফ্রিজের দাম নিয়েএর পরেই সবাই চিন্তা করে ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়েঅনেকেই মনে করেন, ডিপ ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ বেশ ঝামেলাপূর্ণ ও কঠিন কাজ এবং তাঁরা কেনার পর এর সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন নাআবার আরেকটি ধারণা হচ্ছে, ফ্রিজ চালালে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি আসেঅথচ বাস্তবে বিষয়গুলো বেশ ভিন্নমূলত, ফ্রিজ কেনার আগে ফ্রিজ সম্পর্কে একটু ধারণা রাখলে এসব বিষয় নিয়ে চিন্তায় পড়তে হয় নাতাই সকল তথ্য আপনাদের কাছে সহজে তুলে ধরার জন্যেই আজকের এই পোস্ট।    

 

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ প্রাইস ২০২২। ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম 

ফ্রিজের দাম ব্র্যান্ড এর ওপর অনেকটা নির্ভর করেবাজারে বর্তমানে ২০২২ সালে যে ফ্রিজ গুলো বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন আমরা আজকে সেই ফ্রিজ গুলোর দাম নিয়ে আলোচনা করবযেহেতু আপনারা ফ্রিজ কিনবেন বলে চিন্তা তাই আপনাদের আগের দাম বা পূরনো মডেল বিষয়ে যানিয়ে জানিয়ে কোনো লাভ নেইআপনাদের জানাতে হবে বর্তমান বাজার মূল্য এবং সেই অনুপাতে কি ধরনের ডিসকাউন্ট এবং কিস্তিতে নিলে কি ধরনের সুবিধা আছেআমরা আমাদের এই পোস্ট জুড়ে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম।

 

ওয়ালটন ডীপ ফ্রিজ প্রাইস বিডি ২০২২ 

সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চমানের রেফ্রিজেরটর দিয়ে দেশের বাজারে শীর্ষস্থান দখল করেছে ওয়ালটন।এর পাশাপাশি এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটন ফ্রিজএছাড়া দেশের ভেতরে ক্রেতারা ঘরে বসে ফোন করলেই কাছাকাছি প্লাজা অথবা ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম থেকে ক্যাশ অন ডেলিভারি সুবিধায় ওয়ালটন পণ্য পৌঁছে দেওয়া হচ্ছেতাই গ্রাহক চাহিদা ও বিক্রিতে শীর্ষে এখন ওয়ালটন ফ্রিজ ।  

 

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের নতুন মডেল ২০২২  

ওয়ালটন বর্তমানে বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় ইলেক্টট্রনিক পন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাই তাদের পন্য ভান্ডার ও অফুরন্তপ্রতিনিয়তই ওয়ালটন তাদের ফ্রিজে বিভিন্ন মডেল যুক্ত করছে এবং বিভিন্ন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছেএই নতুন মডেল ও নতুন ফিচার গুলো যদি সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাকে ওয়ালটন এর নতুন মডেলের ফ্রিজ কিনতে  হবেতাই এখনে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের বিভিন্ন নতুন মডেলের ফ্রিজের সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার যার মাধ্যমে আপনি ওয়ালটন ফ্রিজ  কেনার ক্ষেত্রে সেরা সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন 

 

আজকের ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের মূল্য তালিকাওয়ালটনের বড় সাইজের এবং দামি ডিপ ফ্রিজ এর তালিকা 

ওয়ালটনের ফ্রিজের  কম্প্রেসরে ১২ বছরের গ্যারান্টি, ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি সুবিধা, এক্সচেঞ্জ অফারে যেকোনো ব্র্যান্ডের ফ্রিজ বদলে ওয়ালটনের নতুন ফ্রিজ কেনার সুযোগ রয়েছে।  

নিচে ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের কিছু মডেলের তালিকা দেওয়া হলোঃ 

WCF-1B5-GDEL-XX 

– প্রকার: ডাইরেক্ট কুল, বিভাগ: তুষারপাত। গ্রস ভলিউম: 125 এল, নেট ভলিউম: 125 এল।রেফ্রিজারেন্ট: V.0101-R600a।

আবাসিক ব্যবহার: 

– প্রতিস্থাপন গ্যারান্টি: 1 বছর (শর্ত প্রযোজ্য)

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 12 বছর 

– খুচরা যন্ত্রাংশ: 4 বছর * 

– বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 5 বছর * 

  

বাণিজ্যিক ব্যবহার: 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 4 বছর। খুচরা যন্ত্রাংশ: 2 বছর, বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 2 বছর ।

আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের মূল্য ২০৯৯০ টাকা। 

WCF-1D5-GDEL-LX 

– প্রকার: ডাইরেক্ট কুল, বিভাগ: তুষারপাত, গ্রস ভলিউম: 146 লিটার। নেট ভলিউম: 146 লিটার, রেফ্রিজারেন্ট: R600a

আবাসিক ব্যবহার: 

– প্রতিস্থাপন গ্যারান্টি: 1 বছর (শর্ত প্রযোজ্য) 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 12 বছর 

– খুচরা যন্ত্রাংশ: 4 বছর * 

– বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 5 বছর * 

  

বাণিজ্যিক ব্যবহার: 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 4 বছর, খুচরা যন্ত্রাংশ: 2 বছর, বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 2 বছর ।

আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের মূল্য ২৩৩০০ টাকা। 

 

WCF-1D5-RRXX-XX 

– প্রকার: ডাইরেক্ট কুল, বিভাগ: তুষারপাত, গ্রস ভলিউম: 146 লিটার। নেট ভলিউম: 146 লিটার, রেফ্রিজারেন্ট: R600a

আবাসিক ব্যবহার: 

– প্রতিস্থাপন গ্যারান্টি: 1 বছর (শর্ত প্রযোজ্য) 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 12 বছর 

– খুচরা যন্ত্রাংশ: 4 বছর * 

– বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 5 বছর * 

  

বাণিজ্যিক ব্যবহার: 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 4 বছর, খুচরা যন্ত্রাংশ: 2 বছর, বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 2 বছর।

আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের মূল্য ২১৩০০ টাকা। 

 

WCF-2T5-GDEL-GX 

– প্রকার: ডাইরেক্ট কুল,বিভাগ: তুষারপাত, মোট আয়তন: 205 লিটার। নেট ভলিউম: 205 Ltr, রেফ্রিজারেন্ট: R600a। 

আবাসিক ব্যবহার: 

– প্রতিস্থাপন গ্যারান্টি: 1 বছর (শর্ত প্রযোজ্য) 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 12 বছর 

– খুচরা যন্ত্রাংশ: 4 বছর * 

– বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 5 বছর * 

  

বাণিজ্যিক ব্যবহার: 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 4 বছর,  খুচরা যন্ত্রাংশ: 2 বছর, বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 2 বছর । 

আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের মূল্য ২৮৩০০ টাকা। 

WCF-2T5-RRLX-XX 

– প্রকার: ডাইরেক্ট কুল , বিভাগ: তুষারপাত, মোট আয়তন: 205 লিটার। নেট ভলিউম: 205 Ltr, রেফ্রিজারেন্ট: R600a।

আবাসিক ব্যবহার: 

– প্রতিস্থাপন গ্যারান্টি: 1 বছর (শর্ত প্রযোজ্য) 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 12 বছর 

– খুচরা যন্ত্রাংশ: 4 বছর * 

– বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 5 বছর * 

  

বাণিজ্যিক ব্যবহার: 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 4 বছর, খুচরা যন্ত্রাংশ: 2 বছর , বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 2 বছর। 

আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের মূল্য ২৫২০০ টাকা। 

 

 

WCG-2E5-EHLX-XX 

– প্রকার: ডাইরেক্ট কুল, বিভাগ: তুষারপাত। গ্রস ভলিউম: 255 লিটার, নেট ভলিউম: 255 লিটার, রেফ্রিজারেন্ট: R600a

আবাসিক ব্যবহার: 

– প্রতিস্থাপন গ্যারান্টি: 1 বছর (শর্ত প্রযোজ্য) 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 12 বছর 

– খুচরা যন্ত্রাংশ: 4 বছর * 

– বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 5 বছর * 

  

বাণিজ্যিক ব্যবহার: 

– প্রধান অংশ (কম্প্রেসার): 4 বছর, খুচরা যন্ত্রাংশ: 2 বছর, বিক্রয়োত্তর পরিষেবা: 2 বছর।

আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের মূল্য ২৯২০০ টাকা। 

 

কিস্তিতে ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ কেনার নিয়ম। ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ কিস্তিতে কিনতে হলে আপনাকে প্রথমে  সরাসরি ওয়ালটন শোরুম বা ই-প্লাজায় যেতে হবেতারপরে তাদের সঙ্গে আলোচনা যে আপনি তাদের থেকে কিস্তিতে ফ্রিজ কিনতে চান তারপরে সেই ই-প্লাজার সেলস ম্যানই আপনার সব ব্যাবস্থা করে দিবেতবে ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে ৪০% ডাউন পেমেন্ট করতে হবেঅর্থাৎ ফ্রিজের যে বাজার মূল্য রয়েছে সেখান থেকে আপনাকে ৪০% টাকা প্রথমেই জমা দিতে হবে এবং পরবর্তীতে বাকি যেই ৬০% টাকা থাকবে সেটা কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবেঅনেক সময় কিস্তিতে ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে আপনাকে ডিসকাউন্টও প্রদান করা হবে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.