Price

ওয়ালটন এসির দাম কত? Walton এসির নতুন মডেল, আপডেট এসি প্রাইস ২০২২ 

ওয়ালটন এসির মূল্য তালিকা । Walton এসির দাম ২০২২

শীত বা গরম যেই সময়ের কথাই বলেন না কেন! মানুষের নিত্যদিনের সাথী এখন এসি। আপনিও কিএসির দাম ও ওয়ালটন এসির নতুন মডেল সম্পর্কে জানতে চান? আপনি কি ওয়ালটন এসির বর্তমান দাম কত জানতে চান? অথবা কিস্তিতে ওয়ালটন এসি কেনার নিয়ম জানতে চান?আপনাদের এইসকল প্রশ্নের সমাধান  ওয়ালটন এসির আপডেট দাম ২০২২ নিয়ে হাজির হয়েছি। তাই ওয়ালটন এসি কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা ওয়ালটন এসির মূল্য তালিকা ২০২২ সম্পর্কে যানতে এই পোস্টটি পড়তে থাকুন। 

দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের সাথে মানুষের ক্রয় ক্ষ্মতাও বাড়ছে তাই অনেকে এখন এসি কিনছেন। এসি যারা কিনছেন তাদের এসি কেনার আগে কিছু বিষয়ে সচেতন হতে হবে। প্রথমত, বাড়ির ধরন বা আকার বুঝে এসি কেনা উচিত। যে রুমে এসি লাগাবেন তাতে যদি জানালা থাকে তবে পছন্দ অনুসারে ভালো ব্র্যান্ড দেখে ‘উইন্ডো এসি’ কিনে নিতে পারেন। আপনার ঘরের আকার যদি ছোট হয় তাহলে এ ধরনের এসি কেনা যেতে পারে। ঘরের আকার বড় হলে বড় লাগবে এসি এবং ঘরের আকার ছোট হলে ছোট এসি। 

আপনার ঘর ছোট,বড়,মাঝারি যেমনই হোক না কেন, সব কিছুর সমধান আপনি দেশীয় ব্যান্ড ওয়ালটন এর কাছে পাবেন সাশ্রয়ী মুল্যে। সব ধরনের ও সব সাইজের এসি ওয়ালটন উৎপাদন করে। তাই আমরা আজকে আলোচনা করবো ওয়ালটন এসির আপডেট দাম ২০২২ ওয়ালটন এসি কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা ওয়ালটন এসির মূল্য তালিকা ২০২২নিয়ে। সকল তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত সাথে থাকুন। 

ওয়ালটন এসি  প্রাইস বিডি ২০২২ 

এসি কেনার কথা মাথায় আসলেই বেশকিছু বিষয় নিয়ে মানুষকে দ্বিধায় পড়তে দেখা যায়। প্রথম চিন্তা  হয় এসির দাম নিয়ে। এর পরেই সবাই চিন্তা করে এসির রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে। অনেকেই মনে করেন, এসি রক্ষণাবেক্ষণ বেশ ঝামেলাপূর্ণ ও কঠিন কাজ এবং তাঁরা কেনার পর এর সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন না। অনেকেই মনে করেন এসি রক্ষণাবেক্ষণ অনেক ব্যয়বহুল আবার আরেকটি ধারণা হচ্ছে, এসি চালালে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি আসে। অথচ বাস্তবে বিষয়গুলো বেশ ভিন্ন। মূলত, এসি কেনার আগে এসি সম্পর্কে একটু ধারণা রাখলে এসব বিষয় নিয়ে চিন্তায় পড়তে হয় না। তাই সকল তথ্য আপনাদের কাছে সহজে তুলে ধরার জন্যেই আজকের এই পোস্ট।    

আজকের ওয়ালটন এসির মূল্য তালিকা । Walton এসির দাম ২০২২ 

এসির দাম ব্র্যান্ড এর ওপর এসির দাম অনেকটা নির্ভর করে । বাজারে ‘টন’ হিসেবে এসি পাওয়া যায় এবং যে ঘরে এসি লাগানো হবে, তার আয়তনের ওপর নির্ভর করে এসি কিনতে হয়। এসির ক্ষমতা যাচাইয়ের পরেই আসে স্প্লিট নাকি উইন্ডো এসি ভালো হবে, সে প্রশ্ন। উইন্ডো এসিতে আওয়াজ বেশি হয় বলে স্প্লিট এসিই সাধারণত সবার প্রথম পছন্দ। এ ছাড়া স্প্লিট এসিতে ঘর বেশ দ্রুত ঠান্ডাও হয়।

বর্তমানে ২০২২ সালে যে এসি গুলো বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন আমরা আজকে সেই এসি গুলোর দাম নিয়ে আলোচনা করব। যেহেতু আপনারা এসি কিনবেন বলে চিন্তা তাই আপনাদের আগের দাম বা পূরনো মডেল বিষয়ে যানিয়ে জানিয়ে কোনো লাভ নেই। আপনাদের জানাতে হবে বর্তমান বাজার মূল্য এবং সেই অনুপাতে কি ধরনের ডিসকাউন্ট এবং কিস্তিতে নিলে কি ধরনের সুবিধা আছে । আমরা আমাদের এই পোস্ট জুড়ে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো। 

 ওয়ালটন এসি প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২২ 

সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চমানের এয়ার কন্ডিশনার দিয়ে দেশের বাজারে শীর্ষস্থান দখল করেছে ওয়ালটন।এর পাশাপাশি এশিয়া,মধ্য প্রাচ্য ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটন এসি। এছাড়া দেশের ভেতরে ক্রেতারা ঘরে বসে ফোন করলেই কাছা কাছি প্লাজা অথবা ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম থেকে ক্যাশঅন ডেলিভারি সুবিধায় ওয়ালটন পণ্য পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। তাই গ্রাহক চাহিদা ও বিক্রিতে শীর্ষে এখন ওয়ালটন এসি। যার পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরে ওয়ালটন এসির বিক্রি বেড়েছে ৪৫০ শতাংশ বা সাড়ে চারগুণ।  

ওয়ালটন ইনভার্টার এসির দাম ২০২২ 

ওয়ালটনের ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে ১০ বছরের গ্যারান্টি, ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি সুবিধা,এক্সচেঞ্জ অফারে যে কোনো ব্র্যান্ডের এসি বদলে ওয়ালটনের নতুন এসি কেনার সুযোগ রয়েছে। এ ছাড়া বিনা মূল্যে ইনস্টলেশন এবং ডিজিটাল প্রচারণার আওতায় এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি অথবা সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার সুযোগ প্রদান করেছে ওয়ালটন। 
বর্তমানে বাজারে ওয়ালটনের রয়েছে ভেনচুরি, রিভারাইন, রিভারাইন প্রো এবং ক্রিস্টালাইন সিরিজের এক, দেড় এবং দুই  টনের বিভিন্ন মডেলের এসি। ওয়ালটনের এক টনের এসির দাম ৩৬ হাজার ৫০০ টাকা। দেড় টনের দাম ৪৫ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ৬৭ হাজার টাকার মধ্যে। আর দুই টনের এসিরদাম পড়বে ৫৬ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ৭৬ হাজার ৯০০ টাকা।

ওয়ালটন এসির নতুন মডেল ২০২২ 

ওয়ালটন বর্তমানে বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় ইলেক্টট্রনিক প্ন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাই তাদের পন্য ভান্ডার ও অফুরন্ত ।প্রতিনিয়তই ওয়ালটন তাদের এসিতে বিভিন্ন মডেল যুক্ত করছে এবং বিভিন্ন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছে। এই নতুন মডেল ও নতুন ফিচার গুলো যদি সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাকে ওয়ালটন এর নতুন মডেলের এসি কিনতে  হবে। তাই এখনে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের বিভিন্ন নতুন মডেলের এসির সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার যার মাধ্যমে আপনি ওয়ালটন এসি কেনার ক্ষেত্রে সেরা সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন। 

কিস্তিতে ওয়ালটন এসি কেনার নিয়ম  

ওয়ালটন এসি কিস্তিতে কিনতে হলে আপনাকে প্রথমে  সরাসরি ওয়ালটন শোরুম বা ই-প্লাজায় যেতে হবে। তারপরে তাদের সঙ্গে আলোচনা যে আপনি তাদের থেকে কিস্তিতে এসি কিনতে চান তারপরে সেই ই-প্লাজার সেলস ম্যানই আপনার সব ব্যাবস্থা করে দিবে। তবে এসি কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে ৪০% ডাউন পেমেন্ট করতে হবে। অর্থাৎ এসির যে বাজার মূল্য রয়েছে সেখান থেকে আপনাকে ৪০% টাকা প্রথমেই জমা দিতে হবে এবং পরবর্তীতে বাকি যেই ৬০% টাকা থাকবে সেটা কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। অনেক সময় কিস্তিতে এসি কেনার ক্ষেত্রে আপনাকে ডিসকাউন্টও প্রদান করা হবে। 

 ওয়ালটন ইনভার্টার, নন-ইনভার্টার এসি 

আপনারা নিশ্চয় লক্ষ্য করেছেন, অনেক ইলেকট্রনিক্স পণ্যের গায়েই এই ইনভার্টার বা নন-ইনভার্টার লেখা থাকে। এসব পণ্যের দাম আর সুবিধাতেও থাকে অনেক পার্থক্য। ইনভার্টার এসির মধ্যে  সুবিধা হচ্ছে যে, ইনভার্টার এসির কম্প্রেসার প্রয়োজন মত নিজস্ব চলার গতি পরিবর্তন করতে পারে। ইনভার্টার এসিতে এমন একটি সেন্সর থাকে যেটি ঘরের তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে কম্প্রেশারটিকে পুরোপুরি বন্ধ না করে, মোটরটির চলার গতি কমিয়ে দেয়। এর কারণেই বিদ্যুৎ খরচ কমে আসে। অপরদিকে, সাধারণ বা নন ইনভার্টার এসির কম্প্রেসার বার বার চালু বন্ধ হয় তাই অনেক বেশি বিদ্যুৎ খরচ করে। সাধারণ এসিতে প্রতিবার কম্প্রেসার ইউনিট চালু হবার সময় অনেক বিদ্যুৎ টানে, এ কারণেই মূলত বিদ্যুৎের খরচ বাড়ে, ফলে বিলও বেশি আসে। 

 

 

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.