OthersSuggestion

স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা- স্কিটো সিমের অফার ২০২২

স্কিটো সিম-এর সুবিধা কী কী? স্কিটো সিমে রিচার্জ করার নিয়ম ২০২২

প্রতিদিন ফ্রি ১০০ টাকা মোবাইল রিচার্জ করুন অথবা বিকাশে টাকা

Easy Way To Earn Money Online

মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করার বিভিন্ন উপায় জানুন

স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা- স্কিটো সিমের অফার ২০২২, স্কিটো সিমের দাম কতো? বাংলাদেশের কোথায় কোথায় স্কিটো সিম পাওয়া যায়? এই সিম কিভাবে কিনবেন? স্কিটো সিম কিনতে কী কী কাগজপত্র প্রয়োজন? সিমের সুবিধা-অসুবিধাসমূহ, টাকা, মিনিট, এমবি / ইন্টারনেট রিচার্জ পদ্ধতি। ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর পাবেন এই আর্টিকেলে ।

বর্তমান সময়ে মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যাবহার করেনা এমন মানুষ খুজে পাওয়া মুশকিল। প্রত্যেকেই প্রত্যক্ষ বা পরক্ষ ভাবে ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত। এই আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্বে কম খরচে বেশি মিনিট ও উচ্চ গতির ইন্টারনেট। ব্যাবহারের জন্যে প্রয়োজন ভালো মানের সার্ভিস দিবে এমন একটি মোবাইল অপারেট বা ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান।

এই ক্ষেত্রে, বাংলাদেশে প্রথম সারির একটি মোবাইল অপারেটর কোম্পানি হল গ্রামীনফোন। আর গ্রামীনফোনের ডিজিটাল কনসেপ্ট এর একটি অংশ হলো স্কিটো সিম। সুতরাং অনেকেই স্কিটো সিম কিনতে আগ্রহী। কিন্তু স্কিটো সিম অন্যান্ন সিমের মতো যেকোনো জায়গায় পাওয়া যায়না। তাছাড়া স্কিটো সিম নিয়ে নানান প্রশ্ন থাকে অনেকের। স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা। 

যেমন- স্কিটো সিমের দাম কতো, কোথায় এবং কিভাবে পাওয়া যাবে। এছাড়াও স্কিটো সিম কিভাবে কিনতে হয় ও কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন? স্কিটো সিমে কি কি সুবিধা পাওয়া যায় ইত্যাদি। তাই এই আলোচনায় আমরা স্কিটো সম্পর্কিত এসকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো।

 

স্কিটো সিমের দাম ২০২২- স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা

গ্রামীনফোন এর রেগুলার সিম থেকে কিছুটা আলাদা একটি সিম হল স্কিটো । বাংলাদেশের বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর গ্রামীনফোন তাদের কাস্টমারদের ইন্টারনেট ব্যাবহারকে বেশি প্রাধান্য দিয়ে স্কিটো সিমটি বাজারে আনে। শুরু থেকেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে স্কিটো সিম। কারন এটি গ্রামীনফোনের শক্তিশালী নেটোয়ার্ক ব্যাবহার করে কম মূল্যে ইন্টারনেট ও মিনিট সেবা দিয়ে আসছে। এছাড়া স্কিটো সিম শুরু থেকে গ্রাহক বান্ধব একের পর এক অফার দিয়ে সকলের মন জয় করে নেয়। 

 

স্কিটো সিমের ব্যাপক চাহিদার কারনে অধিকাংশ সময়ে এই সিম বাজারে পাওয়া যায় না। এর কারনে কোথাও পাওয়া গেলেও দামের তারতম্য থাকে অনেক। অন্যান্য বছরের ন্যায় ২০২২ সালের শুরুতে স্কিটো সিমের দাম কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। এর কারণ হলো স্কিটো সিম এখন আর আগের মত সব জায়গা থেকে সংগ্রহ করা যায় না। যারা সিম বিক্রি করছে তারা কিনে এনে লাভ করার পর তা মালিকানা পরিবর্তন করে আপনার কাছে বিক্রি করছে।

বিভিন্ন তথ্যসূত্রে জানতে পারি কোথাও কোথাও এসব সিম ৩০০ থেকে ৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কিন্তু আপনি যদি স্কিটো সিম গ্রামীণফোনের কাস্টমার কেয়ার বা রিটেলার শপ থেকে সংগ্রহ করতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনি মাত্র ২০০ টাকা দিয়েই কিনতে পারবেন।

 

স্কিটো সিম কোথায় পাওয়া যায়?

স্কিটো সিম এখন আর আগের মত সব জায়গা থেকে সংগ্রহ করা যায় না। স্কিটো সিম আপনি গ্রামীণফোনের প্রতিটি আউটলেট বা কাস্টোমার সার্ভিস পয়েন্ট থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। তাবে স্কিটো সিম পাওয় নির্ভর করছে স্টক থাকার ওপর। এছাড়া আপনি আপানার স্থানীয় সিম বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করে দেখতে পারেন।

কেননা তারা কোথাও স্কিটো সিমেন সন্ধান পেলে নিজেদের জাতীয় পরিচয় পত্র ব্যবহার করে কিনে রাখে এবং পরবর্তীতে কেউ কিনলে সেটি বেশি মূল্যে বিক্রি করে। এই ক্ষেত্রে যদি আপনি নিকটবর্তি সিম বিক্রেতাকে বিষয়টি জানিয়ে রাখেন তাহলে তারা আপনাকে স্কিটো সিম সংগ্রহ করে দিতে পারবে আশা করছি। স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা।

 

কিভাবে স্কিটো সিম কিনবেন?

আমাদের আলোচনায় ইতমধ্যেই বলেছি যে স্কিটো সিম যেকোনো জায়গায় পাওয়া যায়না। সুতরাং আপনি বাংলাদেশের যেই প্রান্তেই থাকেননা কেন আমাদের পদ্ধতি অনুসরণ করলে খব সহজেই স্কিটো সিম কিনতে পারবেন। এজন্য প্রথমে আপনার এলাকার সিম বিক্রেতাদের সাথে যোগাযোগ করুন যে তাদের কাছে স্কিটো সিম আছে কি নাই। যদি না থাকে তাহলে তাদের স্কিটো সিম জোগাড় করতে পারবে কি না? আশা করছি আপনার এলাকার কোন না কোন দোকানদার স্কিটো সিম দিতে পারবে।

এছাড়াও আপনি আপনার নিকটতম জেলা শহরে গেলেও স্কিটো সিম পাবেন। যেমন, যেসকল স্থানে বেশি মানুষের সমাগম থাকে সেসকল স্থানে স্কিটো সিম বিক্রি করে। এই ক্ষেত্রে জেলা সহরের বাজার, বিশ্ববিদ্যালয়, ইত্যাদি স্থানে স্কিটো সিম কিনতে পারবেন।

 

স্কিটো সিম অনলাইন অর্ডার -স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা

আপনি যদি একজন অলস ব্যক্তি হন তাহলে ঝামেলা এবং পরিশ্রম ছাড়াই বাড়িতে বসে স্কিটো সিম অনলাইনে কিনতে পারবেন। তাহকে নিচের স্টেপ অনুযায়ী কাজ করুন- প্রথমে আপনাকে স্কিটো অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে অনুসন্ধান করতে হবে।

  • তারপর আপনি স্কিটো সিম সম্পর্কে কিছু তথ্য পাবেন “গেট স্কিটো” মেনু থেকে।
  • তারপর আপনার লোকেশন বা অবস্থান পূরণ করুন, জেলা নির্বাচন করুন, এলাকা নির্বাচন করুন
  • আপনার প্রথম ধাপ শেষ করার পর, আপনাকে দ্বিতীয় ধাপে যেতে হবে।
  • আপনার নাম, লিঙ্গ, পেশা পূরণ করুন, যা আপনার দ্বিতীয় ধাপ
  • আপনি এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করার পরে, আপনার ডেলিভারি অবস্থান ঠিক করুন
  • আপনার নির্বাচিত ডেলিভারি অবস্থান এমন একটি এলাকা হতে হবে যেখানে আপনি সহজেই আপনার স্কিটো সিম ডেলিভারি পেতে পারেন।

অবশেষে, আপনি Skitto সিমের বিবরণ এবং পরিমাণ পাবেন। যখন আপনি নিশ্চিত হতে পারেন যে সমস্ত কাজ সম্পন্ন হয়েছে, আপনাকে নিশ্চিতকরণ বোতামে ক্লিক করতে হবে। এইসব করার পরে, আপনার স্কিটো সিমটির অর্ডার সম্পন্ন় হবে।

 

স্কিটো সিম-এর সুবিধা কী কী? স্কিটো সিমে রিচার্জ করার নিয়ম ২০২২

গ্রামীনফোনের একটা ডিজিটাল কনসেপ্ট স্কিটো। এটি বিশেষ ধরনের এক প্রকার প্রিপেইড সিম।বর্তমানে এটি শুধুমাত্র নির্দিষ্ট কিছু গ্রামীণফোন এক্সপ্রেস এ বিক্রি করা হচ্ছে অকল্পনীয় কিছু অফার নিয়ে সিমটি বাজারে ছাড়ে গ্রামীনফোন।বর্তমান সময়ে যারা বেশি বেশি ইন্টারনেট ব্যবহার করে তাদের জন্য স্কিটো সিম অনেক সাশ্রয়ী।যদিও এর কলরেট ও যথেষ্ট আকর্ষণীয়। এই সিমের কোনো ussd কোড নাই।সব কিছু স্কিটো নামক সফটওয়ার দিয়ে ব্যাবহার করতে হয়।

আকর্ষণীয় ইন্টারনেট অফারের জন্যেই মানুষ মূলত এই সিম বেশি ব্যবহার করে থাকেন।গ্রামীনফোনের স্কিটো সিমের রয়েছে আলাদা হেল্পলাইন। এই সিম মূলত ইন্টারনেট সিম হিসেবে মানুষের কাছে পরিচিত।খুব কম দামে এই সিমে ইন্টারনেট কেনা যায়। এটিই মূলত এই সিমের মূল বৈশিষ্ট্য।


.
শুরুর দিকে স্কিটো সিমের ইন্টারনেট প্যাকের দাম অনেক কম ছিল।তবে অন্যান্য অপারেটর এবং বিটিআরসি’র নির্দেশনার কারনে নতুন প্যাকেজগুলোর দাম কিছুটা বেড়েছে।তবে সেগুলোও খবর একটা খারাপ না। রেডি প্যাকগুলোর সাধারন দাম, এছাড়াও প্রমো ডিল গুলোও খুব সাশ্রয়ী। এই সিমের কলরেটও অনেক কম।

 

স্কিটো সিমের সকল কোড -স্কিটো সিমের সুবিধা অসুবিধা

সিম সব দিক থেকেই একটু ব্যাতিক্রমি। স্কিটো সিমের কোনো ussd কোড নাই।তাই সব কিছু স্কিটো নামক সফট -ওয়ার ব্যাবহার করে স্কিটো সিমের ব্যালেন্স দেখতে হয়।কিন্তু এতে কোন গ্রাহক বিরক্ত হয়না।কারন স্কিটো অ্যাপস এর ইউজার এক্সপেরিয়েন্স ও ইউজার ইন্টারফেজ অসাধারন।যা মানুষের জীবন আরো সহজ করে তুলেছে।

 

স্কিটো সিমে এমবি কেনার নিয়ম

স্কিটো সিমের কোনো ussd কোড নাই। তাই সব কিছু স্কিটো নামক সফটওয়ার ব্যাবহার করে স্কিটো সিমের ইন্টারনেট ব্যালেন্স দেখতে হয়।এছাড়াও স্কিটো সফটওয়ার স্কিটো সিমে এমবি কিনতে হয়। সভাবতই স্কিটো একটি ব্যতিক্রমী সিম। তাই এ কারণে রিচার্জ এর ক্ষেত্রে অনে়কে বুঝে উঠতে পারে না। আমাদের আশে পাশে অনেক হাটবাজারে অন্যান্য অপারেটর রিচার্জের সুবিধা থাকলেও স্কিটো সিমে রিচার্জ করা সম্ভব হয় না।

তাই অনেকেই এরকম ঝামেলা পোহাতে অনেকে সার্ভিস সেন্টার থেকে স্কিটো সিমে রিচার্জ কর়ত।কিন্তু এখন ফ্লেক্সি লোডের দোকান থেকে স্কিটো সিমে রিচার্জ করা যায়। আপনারা ফ্লেক্সিলোডের দোকান থেক়ে নিজেও স্কিটো সিম রিচার্জ করে নিতে পারেন। যদি স্কিটো সিম রিচার্জ না করতে পারেন তাহলে ফ্লেক্সি লোডের দোকানে গিয়ে তাকে এ পদ্ধতি অনুসরণ করতে বলুন

*666*skitto number*Amount*Flexiload pin number# তাছাড়া বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট থেকে ও সরাসরি স্কিটো সিমে রিচার্জ করতে পারবেন।

 

বিকাশ থেকে স্কিটো সিমে রিচার্জ

বিকাশের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে সহজেই আপনার স্কিটো সিমে রিচার্জ করতে পারেন। সেক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে গুগল প্লে স্টোর থেকে বিকাশ অ্যাপটি ডাউনলোড করে প্রবেশকরুন আপনি যখন বিকাশে আপনি তো আপনার পর্যাপ্ত ডকুমেন্ট দিয়ে এবং পিন দিয়ে লগইন করবেন।এবার ড্যাশবোর্ডে যেতে পারবেন।

এখান থেকে অনেকগুলো অপশনের মধ্যে mobile recharge নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন। আপনি যে নাম্বারে রিচার্জ করতে চান সেটি এখানে দিয়ে দিন এবং অপারেটর এর জায়গায় স্কিটো সিলেক্ট করুন। এভাবে আপনার সিমে রিচার্জ করে নিন ।

 

স্কিটো সিমের নাম্বার চেক

স্কিটো সিমে নিজের নাম্বার দেখার কোড বা Skitto Number Check Code হলো *2। আপনার মোবাইলের ডায়াল প্যাড এ গিয়ে *2# টাইপ করে ডায়াল করে দিলেই আপনার সেই স্কিটো সিমের নাম্বার দেখতে পারবেন। অথবা স্কিটো সফটওয়ার থেকে ও খুব সহজেই স্কিটো নাম্বার চেক করতে পারবেন।

আশাকরি এই আর্টিকেল আপনার উপকারে এসেছে । শেষ পর্যন্ত সাথে থাকার জন্যে ধন্য়বাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.