Others

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২২ – ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং

কিভাবে রকেট একাউন্ট বানাবেন?

রকেট (Rocket) একটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। রকেট বাংলাদেশের অন্যতম ব্যাংক ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একটি ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা, যেখানে আমরা অনেক ধরনের সেবা পেয়ে থাকি যেমনঃ বিল পেমেন্ট, অনলাইন পেমেন্ট, ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট, এটিএম ক্যাশ আউট, মানি ট্রান্সফার, ইত্যাদি। রকেট মোবাইল ব্যাংকি বর্তমানে জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা যার মাধ্যমে খুব সহজে দ্রুত সময়ে টাকা লেনদেন করা যায়।

রকেট বা রকেট মোবাইল ব্যাংকিং কি?

রকেট বাংলাদেশের অন্যতম ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। রকেট নাম কেন?  এই ব্যাংকিং সেবার নাম রকেট রাখার কারন, রকেট বলতে আমরা সাধারণত আকাশে উড়া বিশেষ দ্রুত যানকে বুঝে থাকি। আকাশ যানগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দ্রুত চলে রকেট। এখানে রকেট নামের মাধ্যমে এটা বুঝানো হয়েছে,  রকেটের মত দ্রুত ব্যাংকিং সেবা এখন আপনার হাতের মুঠোয় আর এটাই হলো রকেট মোবাইল ব্যাংকিং।

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিং এর সকল ডিজিটাল সেবা গ্রহণ করা যায়। রকেট মোবাইল ব্যাংকিং মোবাইল নেটওয়ার্ক এবং ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক দুই ভাবেই নেওয়া যায়।

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর সৃষ্টিঃ

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং ডাচ্-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং সেবার নতুন নাম। ডাচ্ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু হয় ২০১১ সালে।  মোবাইল ভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা সর্ব প্রথম ডাচ্-বাংলা ব্যাংক চালু করে। ২০১৬ সালে ডাচ্-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং এর নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম রকেট রাখা হয়। 

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং প্রথমে টাকা ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট এবং ট্রান্সফার সেবার মাধ্যমে যাত্রা করে। পরবর্তী সময় অনেক ফিচার এড করে।

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর সেবা সমূহ

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে ব্যাংকিং সুবিধা পাওয়া যায়। মোবাইল ফোনের সহজলভ্যতা বর্তমান মোবাইল ব্যাংকিং রকেট সেবাকে আরো জনপ্রিয় করে তুলেছে। রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর সবে সমূহ নিচে উল্লেখ করা হলো-

  • ক্যাশ ইন।
  • ক্যাশ আউট।
  • মার্চেন্ট পেমেন্ট।
  • ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট।
  • বেতন প্রদান।
  • রেমিটেন্ট ট্রান্সফার।
  • মোবাইল ব্যালেন্স রিচার্জ।
  • টাকা ট্রান্সফার।
  • ভাতা প্রদান।
  • এটিএম হতে টাকা উত্তোলন সহ ইত্যাদি।

রকেট এর সুবিধা

মোবাইল ব্যাংকিং এর সকল সুবিধা রকেট মোবাইল ব্যাংকিং দিয়ে থাকে। বাংলাদেশে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং প্রথম নিয়ে আসে যার পরবর্তী নাম রকেট মোবাইল ব্যাংকিং। যদিও শুরুর দিকে সেবা সীমিত পরিসরে শুরু করেছিলো।  তবে বর্তমানে এর ব্যাপকতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন অনেক সেবাই আমরা রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পেয়ে থাকি।

      

  • দেশেজুড়ে যে কোন সময় যে কোন স্থানে ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করে।
  • মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধাজনক, সহজলভ্য এবং নিরাপদ লেনদেন ব্যবস্থা নিশ্চিত করে। 
  • টাকা সঞ্চয়ের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় বৃদ্ধিতে অবদান রাখে।
  • এই ব্যবস্থার মাধ্যমে খুবই দ্রুত এবং আধুনিক ব্যাংকিং সেবায় প্রবেশের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে।
  • মোবাইল ব্যাংকিং অধিকতর নিরাপদ ও প্রতারণারোধক হিসাবে ইতেমধ্যে পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। 
  •  অনলাইন ব্যাংকিং এর সুবিধা প্রদান করে।

রকেট (Rocket) একাউান্ট খোলার নিয়ম

ডাচ্-বাংলা রকেট একাউন্ট মূলত দুই ভাবে খোলা যায়। রকেট একাউন্ট খোলা অনেক সিম্পল এবং ইজি। 

১. এজেন্ট এর কাছ থেকে রকেট একাউন্ট খোলা।

২. রকেট মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে রকেট একাউন্ট খোলা।   

এজেন্টের এর কাছ থেকে রকেট একাউন্ট খুলতে হয় কি ভাবে?

প্রথমে জানবো রকেট এজেন্ট কে বা কারা?  রকেট অনুমোদিত এজেন্টদের মধ্যে অন্যতম হল ডাচ-বাংলা ব্যাংকের যেকোন ব্রাঞ্চ, রকেট মোবাইল ব্যাংকিং অফিস কিংবা রকেট কাস্টমার কেয়ারই রকেট এজেন্ট ।

রকেট এজেন্টের কাছে গিয়ে আমরা সহজে আমাদের রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এ রকেট একাউন্ট খুলতে পারি। এজেন্ট প্রথমে একটি ‘KYC’ ফরম দিবে।  KYC ফুল মিনিং Know Your Customer. এবার KYC ফরম পূরণ করে সাথে ছবি এবং NID Card এর কপি জমা দিতে হবে। তারপর, রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট সেগুলো যাচাই-বাচাই করার পর সে তার এজেন্ট রকেট একাউন্ট থেকে আপনার নাম্বারটিতে রকেট একাউন্ট চালু করার জন্য আবেদন করবে।

আবেদনের পর ৪ সংখ্যার একটি পিন সেটআপ করতে হবে। এর পর থেকে আপনার  মোবাইলে রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট চালু হয়ে যাবে। 

মনে রাখবেন কেউ আপনার পিন নাম্বার জেনে গেলে আপনার রকেট একাউন্ট থেকে টাকা চুরি করে নিতে পারে। তাই লেনদেন এ সজাগ থাকবেন এবং পিন গোপন রাখবেন।

মোবাইলে রকেট অ্যাপের মাধ্যমে কি ভাবে রকেট একাউন্ট খুলবো?

ঘরে বসে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম একদম সহজ একটি বিষয়। রকেট তাদের গ্রাহকের সুবিধার জন্য অ্যাপ ব্যবহার করে একাউন্ট খোলারও সুযোগ রেখেছে। যার ফলে, কষ্ট করে বাইরে গিয়ে রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলতে হয় না।

এখন আমরা স্টেপ বাই স্টেপ জানবো কি ভাবে সহজে ঘরে বসে রকেট অ্যাপের মাধ্যমে রকেট একাউন্ট খোলা যায়।

১ম ধাপঃ

আপনার মোবাইল ফোনের প্লেস্টোরে গিয়ে রকেট অ্যাপ লিখে সার্স করুন। Play Store হতে ‘রকেট-Rocket’ অ্যাপটি ইন্সটল করুন।

২য় ধাপঃ

আপনি আপনার যে নাম্বার দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলতে  চান সে নাম্বারটি দিন।

৩য় ধাপঃ

এবার আপনার প্রদানকৃত মোবাইল নাম্বারটির অপারেটর সিলেক্ট করে দিন।

৪র্থ ধাপঃ

আপনার সিলেক্টকৃত নাম্বারে একটি কল আসবে, কলে বলা নিয়ম অনুসারে পিন নাম্বারটি বলুন।

৫ম ধাপঃ

কল শেষ করার পর একসাথে আপনার  Mobile Number, OTP / Security Code, Pin সাবমিট করতে বলবে এখন এই ইনফরমেশন গুলা সাবমিট করুন।  

৬ষ্ঠ ধাপঃ

তারপর হোম পেইজ থেকে KYC ফরম এ যাবেন গিয়ে সকল ‘Terms & Conditions’ এ ‘Agree’ করে দিবেন।

৭ম ধাপঃ

এই ধাপে আপনি আপনার NID Card এর ছবি তুলুন এবং কিছু Personal Information চাইবে সেগুলা পুরন করুন। তারপর, নিজের ছবি তুলে সাবমিট করুন।

হয়ে গেল আপনার রকেট একাউন্ট খোলা। এখন আপনার রকেট একাউন্টটি চালু হয়ে যাবে।  

রকেট একাউন্ট চেক করার কোড

কিভাবে রকেট একাউন্ট চেক কিংবা ব্যালেন্স জানা যায়? রকেট একাউন্ট চেক করার জন্য ২টি উপায় রয়েছে। যথা:-

  • ম্যানুয়ালি *৩২২# ডায়াল।
  • রকেট অ্যাপ ব্যবহার।

রকেট একাউন্ট নিয়ে কিছু সাধারণ জিজ্ঞেসা

১. রকেট মোবাইল ব্যাংকিং কি নিরাপদ?

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একটি নিরাপদ আর্থিক লেনদেন ব্যবস্থা। রকেট তাদের লেনদেন প্রযুক্তি হিসেবে USSD কিংবা SMS+IVR ব্যবহার করে থাকে।USSD প্রযুক্তিতে নির্দেশনা ও পিন, USSD মাধ্যমে SMS+IVR, SMS মাধ্যমে PIN ও IVR কল ব্যবহার হয়। পিন প্রযুক্তিতে লেনদেনের জন্য USSD ও IVR দুটিই অত্যন্ত নিরাপদ। মোবাইল এবং পিন ছাড়া যেহেতু টাকা উত্তোলন সম্ভব নয়, তাই, টাকা নিরাপদে থাকে।

২. যে কোন সিম দিয়ে কি রকেট একাউন্ট খোলা যায়?

হ্যাঁ, রকেট একাউন্ট যে কোন সিম দিয়ে খোলা যায়। 

 ৩.  রকেট একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে?

রকেট একাউন্ট খুলতে যা যা লাগবেঃ

  • একটি অ্যাক্টিভ মোবাইল নাম্বার।
  • ইন্টারনেট কানেকশন।
  • রকেট অ্যাপ ইন্সটল করা স্মার্টফোন।
  • জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি)।

৪.রকেট একাউন্টে ব্যালান্স কি ভাবে দেখতে হয়?

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং মেনু ব্যবহার করে রকেট একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখা যাবে। এছাড়াও অ্যাপ থেকে রকেট একাউন্ট চেক করার সুবিধা তো রয়েছেই। রকেট একাউন্ট দেখতেঃ

*322# ডায়াল করুন

Balance অপশনে যেতে 5 লিখে রিপ্লাই করুন

এরপর আপনার রকেট একাউন্ট এর পিন লিখুন

সঠিক পিন এন্টার করে থাকলে একাউন্ট ব্যালেন্স দেখতে পাবেন

এছাড়াও 16216 নাম্বারে খালি মেসেজ পাঠালেও ফিরতি এসএমএস এ রকেট একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে পাবেন।

৫. রকেট একাউন্টের পিন পরিবর্তন করা যায়?

হ্যাঁ, রকেট একাউন্টে চাইলেই পিন পরিবর্তন করা যায়।রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্টে পিন পরিবতন করার নিয়ম নিম্নে দেওয়া হল:-

প্রথমে, *৩২২# নাম্বারে ডায়াল করে রকেট ম্যানুতে যেতে হবে।

সেখানে, 7 অপশন ‘7. Change Pin’ এ যেতে হবে।.

প্রথমে বর্তমান পিন দিয়ে Reply দিতে হবে।

এখন ৪ সংখ্যার নতুন পিনটি লিখে Reply দিলে পিন পরিবর্তন হয়ে যাবে।

৬.  রকেট মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহার করলে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান কিংবা সরকার কী সুবিধা পায়?

 হ্যাঁ, অবশ্যই রকেট মোবাইল ব্যাংকিং ব্যাবহার করলে ব্যাবসায়িক প্রতিষ্ঠান কিংবা সরকার অনেক সুবিধা পেয়ে থাকে।

  • কম সময়ে বেতন কিংবা ভাতা দেওয়া যায়।
  • খরচ কমে যায়।
  • বেতনের হিসাব রাখার জন্য বাড়তি লোক প্রয়োজন হয় না।
  • হিসাব ভুল হবার সম্ভাবনা থাকে ন।
  • সকল তথ্য সঠিক ভাবে সংরক্ষণ করা সহজ হয়।

রকেট হেল্পলাইন নাম্বার

রকেট (Rocket) Customer Service Helpline number is 16216.

Related Articles