Price

মিনিস্টার ফ্রিজের দাম ২০২২। Minister ফ্রিজ বাংলাদেশ প্রাইস

মিনিস্টার ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২

বর্তমান সময়ে সংসারের জন্য সবচেয়ে প্রয়োজনীয় উপকরণ ফ্রিজ। মানুষের নিত্যদিনের সাথী এখন ফ্রিজ। আপনিও কি ফ্রিজের দাম ও মিনিস্টার ফ্রিজের নতুন মডেল সম্পর্কে জানতে চান?

আপনি কি মিনিস্টার ফ্রিজের বর্তমান দাম কত জানতে চান? অথবা কিস্তিতে মিনিস্টার ফ্রিজের কেনার নিয়ম জানতে চান?আপনাদের এইসকল প্রশ্নের সমাধান মিনিস্টার ফ্রিজের আপডেট দাম ২০২২ নিয়ে হাজির হয়েছি। তাই মিনিস্টার ফ্রিজ কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা মিনিস্টার ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ সম্পর্কে যানতে এই পোস্টটি পড়তে থাকুন।

দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের সাথে মানুষের ক্রয় ক্ষ্মতাও বাড়ছে তাই বেশির ভাগ মানুষ এখন বিভিন্ন মাধ্যমে ফ্রিজ কিনছেন। ফ্রিজ যারা কিনছেন তাদের ফ্রিজ কেনার আগে কিছু বিষয়ে সচেতন হতে হবে।

প্রথমত, পরিবারের বা আপনার চাহিদা অনুযায়ী ফ্রিজের আকার নির্ধারন করে ফ্রিজ কেনা উচিত। আপনার পরিবারের যদি সদস্য কম হয় তাহলে ছোট ফ্রিজ কিনবেনএবং পরিবারের যদি সদস্য বেশি হলে বড় ফ্রিজ কিনবেন।

আপনার পরিবার ছোট,বড়,মাঝারি যেমনই হোক না কেন, সব কিছুর সমধান আপনি দেশীয় ব্র্যান্ড মিনিস্টার এর কাছে পাবেন সাশ্রয়ী মুল্যে। সব ধরনের ও সব সাইজের ফ্রিজ মিনিস্টার উৎপাদন করে।

তাই আমরা আজকে আলোচনা করবো মিনিস্টার ফ্রিজের আপডেট দাম ২০২২ মিনিস্টার ফ্রিজের কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা মিনিস্টার ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ নিয়ে। সকল তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত সাথে থাকুন।

মিনিস্টার ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২

ফ্রিজ কেনার কথা মাথায় আসলেই বেশ কিছু বিষয় নিয়ে মানুষকে দ্বিধায় পড়তে দেখা যায়। প্রথম চিন্তা হয় ফ্রিজের দাম নিয়ে। এর পরেই সবাই চিন্তা করে ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে।

অনেকেই মনে করেন, ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ বেশ ঝামেলাপূর্ণ ও কঠিন কাজ এবং তাঁরা কেনার পর এর সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন না।

আবার আরেকটি ধারণা হচ্ছে, ফ্রিজ চালালে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি আসে। অথচ বাস্তবে বিষয়গুলো বেশ ভিন্ন। মূলত, ফ্রিজ কেনার আগে ফ্রিজ সম্পর্কে একটু ধারণা রাখলে এসব বিষয় নিয়ে চিন্তায় পড়তে হয় না।

তাই সকল তথ্য আপনাদের কাছে সহজে তুলে ধরার জন্যেই আজকের এই পোস্ট।

মিনিস্টার ফ্রিজ মডেল ২০২২

মিনিস্টার বর্তমানে বাংলাদেশে বড় এক একটি ইলেক্টট্রনিক পন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাই তাদের পন্য ভান্ডার ও অফুরন্ত। প্রতিনিয়তই মিনিস্টার তাদের ফ্রিজে বিভিন্ন মডেল যুক্ত করছে এবং বিভিন্ন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছে।

এই নতুন মডেল ও নতুন ফিচার গুলো যদি সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাকে মিনিস্টার এর নতুন মডেলের ফ্রিজ কিনতে হবে।

তাই এখনে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের বিভিন্ন নতুন মডেলের ফ্রিজের সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার। যার মাধ্যমে আপনি মিনিস্টার ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে সেরা সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন।

মিনিস্টার ডিপফ্রিজ প্রাইস ২০২২। মিনিস্টার ফ্রিজের দাম

ফ্রিজের দাম ব্র্যান্ড এর ওপর অনেকটা নির্ভর করে। বাজারে বর্তমানে ২০২২ সালে যে ফ্রিজ গুলো বাজারে ছেড়েছে মিনিস্টার আমরা আজকে সেই ফ্রিজ গুলোর দাম নিয়ে আলোচনা করব। যেহেতু আপনারা ফ্রিজ কিনবেন বলে চিন্তা তাই আপনাদের আগের দাম বা পূরনো মডেল বিষয়ে যানিয়ে জানিয়ে কোনো লাভ নেই।

আপনাদের জানাতে হবে বর্তমান বাজার মূল্য এবং সেই অনুপাতে কি ধরনের ডিসকাউন্ট এবং কিস্তিতে নিলে কি ধরনের সুবিধা আছে মিনিস্টার ফ্রিজে। আমরা আমাদের এই পোস্ট জুড়ে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো।

আজকের মিনিস্টার ফ্রিজের মূল্য তালিকা। 

আপনাদের বুঝতে সুবিধার জন্য মিনিস্টার ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ নিয়ে হাজির হয়েছি। এই পোস্টে আমরা আলোচনা করবো মিনিস্টারের দশ,বারো এবং চোদ্দ সেফটি ফ্রিজের দাম নিয়ে। নিচে মিনিস্টার ফ্রিজের মডেল নাম ও গুনাগুন তুলে ধরা হলোঃ

মিনিস্টিার M-165 BLACKBERR: M-165 মডেল মিনিস্টার ফ্রিজটি বাজেটের মধ্যে সেরা একটি ফ্রিজ। তাই আপনারা যারা কম বাজেটে একটু ভালো মানের ফ্রিজ কিনতে চান ছোট ফ্যামেলির জন্য। তারা চোখবন্ধ করে মিনিস্টার M-165 মডেলের ফ্রিজটি কিনে নিতে পারেন। ফ্রিজটির উপরে রয়েছে ডিপ এবং নিচের অংশে রয়েছে নরমাল।

এই ফ্রিজটিতে আরো রয়েছে কালার BLACKBERRY STAR। কুলিং টাইপ ফ্রস্ট ফ্রিজ। রেফ্রিজারেন্ট R600a। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ৬৬ %। ফ্রিজের ডিপ অংশ ৪০%। রেফ্রিজারেটর নরমাল ৬০%। ফ্রিজের গ্যারেন্টি ১০ বছর। কম্প্রোসার গ্যারেন্টি ৭ বছর। নেট ওজন ৩৭.৪ (কেজি)। গ্রস ক্যাপাসিটি ১৬৫ লিটার। আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের দাম ধরা হয়েছে ১৯৪০০ টাকা।

 

মিনিস্টারের বড় সাইজের এবং দামি ফ্রিজ এর তালিকা

মিনিস্টার M-175 MERUN –VC: খুবই স্বল্প মূল্যে যদি ভাল মানের একটি ফ্রিজ পেতে চান তাহলে দেখতে পারেন M-175 MERUN -VCM মডেলটি। এর ডিজাইন ও কালার এত বেশি আকর্ষণীয়।

যার ফলে খুব সহজে মানুষের মনে যায়গা করে নেয়। এই ফ্রিজটিতে আরো রয়েছে ক্যাপাসিটিঃ ১৭৫ লিটার। ওজনঃ ৪৪ কেজি। দৈর্ঘ্যঃ ৫৪৫ মিলিমিটার। প্রস্থঃ ৫৮৫ মিলিমিটার। কালারঃ ক্লাসি মেরুন কালার আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের দাম ধরা হয়েছে ২১৯০০ টাকা।

মিনিস্টার M-255 RED FLOWER: মিনিস্টর M-255 RED FLOWER মডেলটি মিডিয়াম বাজেটের একটি ফ্রিজ। আপনাদের যদি বাজেট মিডিয়াম হয় এবং একটু বেশি জায়গা যুক্ত ফ্রিজ কিনতে চান তাহলে মিনিস্টার ফ্রিজের এই মডেলটি দেখতে পারেন। এই ফ্রিজটিতে আরো রয়েছে কালার RED FLOWER। কুলিং টাইপ ফ্রস্ট ফ্রিজ।

রেফ্রিজারেন্ট R600a। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ৬৬%। ফ্রিজের ডিপ অংশ ৪০%। রেফ্রিজারেটর নরমাল ৬০%। এনার্জি সেভিং রেফ্রিজারেন্ট।ফ্রিজের গ্যারেন্টি ১০ বছর। কম্প্রোসার গ্যারেন্টি ১২ বছর। নেট ওজন ৫৯.১ (কেজি)। গ্রস ক্যাপাসিটি ২৫৫ লিটার। আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের দাম ধরা হয়েছে ২৮৯০০ টাকা।

মিনিস্টার M-195 BLACKBERRY STAR MATCH: ছোট সাইজের মধ্যে অনেকগুলো অসাধারণ ফিচারে তৈরি এই মিনিস্টার ফ্রিজ। আপনার ঘরের আয়তন কম হলে এই ফ্রিজটি দেখতে পাড়েন।

এই ফ্রিজটিতে আরো রয়েছ। ক্যাপাসিটিঃ ১৯৫ লিটার। ওজনঃ ৪৮ কেজি। দৈর্ঘ্যঃ ৫৮৫ মিলিমিটার। প্রস্থঃ ৬০৫ মিলিমিটার। কালারঃ BLACKBERRY STAR। আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের দাম ধরা হয়েছে ২৪৫০০ টাকা।

মিনিস্টার M-330 Black Lotus: মিনিস্টার M-330 Black Lotus নামক এই ফ্রিজ দেখতে অনেক সুন্দর একটি ফ্রিজ। এই ফ্রিজটির তিন ভাগে বিভক্ত। ৩০% রয়েছে ফ্রিজার স্পেস এবং ২০% মিড ফ্রিজার ক্যাপাচিটি।

এবং বাকি ৫০% রয়েছে রেফ্রিজারেটর ক্যাপাসিটি। আকর্ষনীয় এই ফ্রিজের বাজার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩২ হাজার ৯০০ টাকা।

কিস্তিতে মিনিস্টার ফ্রিজ কেনার নিয়ম

মিনিস্টার ফ্রিজ কিস্তিতে কিনতে হলে আপনাকে প্রথমে সরাসরি মিনিস্টার শোরুমে যেতে হবে। তারপরে তাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। যে আপনি তাদের থেকে কিস্তিতে ফ্রিজ কিনতে চান তারপরে সেই শোরুমের সেলস ম্যানই আপনার সব ব্যাবস্থা করে দিবে। তবে ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে ৪০% ডাউন পেমেন্ট করতে হবে।

অর্থাৎ ফ্রিজের যে বাজার মূল্য রয়েছে সেখান থেকে আপনাকে ৪০% টাকা প্রথমেই জমা দিতে হবে। এবং পরবর্তীতে বাকি যেই ৬০% টাকা থাকবে সেটা কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। অনেক সময় কিস্তিতে ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে আপনাকে ডিসকাউন্টও প্রদান করা হবে।

Related Articles