জানা অজানা

কিভাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়? জেনে রাখুন এই পদ্ধতিগুলো

How to speak beautifully?

জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে নিজেকে স্মার্ট হিসেবে তুলে ধরার একটি বড় মাধ্যম হলো আপনি কিভাবে কথা বলেন। আর সুন্দর ভাবে কথা বলা, কথা উপস্থাপনার মাধ্যমে আপনি আত্মবিশ্বাসি হতে পারবেন। অন্যদের সাথে কথা বলার সময় অনেকেই কথা গুছিয়ে বা সুন্দর ভাবে বলতে পারেনা। আপনারও কি একই অবস্থা? তাহলে চলুন জেনে নিই কীভাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়। প্রশ্নের উত্তর গুলো কোরা (Quora) ব্যবহারকারীদের থেকে নেওয়া।

Sanzida Afia এর মতে যেথাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়:

সুন্দর করে কথা বলার উপায়গুলো, জেনে নেওয়া যাক।

Advertisement
  • ১। এর মধ্যে প্রথমটি হলো শুদ্ধ উচ্চারণ চর্চা।
  • ২। একটু বিরতি দিয়ে কথা বলুন।
  • ৩। অঙ্গভঙ্গির ব্যবহার করুন।
  • ৪। মুখের অভিব্যক্তি প্রকাশ করা শিখুন।
  • ৫। মুদ্রাদোষ পরিহার করুন।
  • ৬। আত্মবিশ্বাসের সাথে কথা বলুন।
  • ৭। ভদ্রতা ও শালীনতা বজায় রেখে কথা বলুন।

আর খারাপ ভাষা ব্যবহার করবেন না বা কাউকে ইমোশনাল অ্যাটাক করে কথা বলবেন না।

Muntaseer Jaheen এর মতে যেথাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়:

আসসালামু আলাইকুম। কথা বলার সময় কিছু নিয়ম মেনে চললে মনের ভাব খুব সুন্দর করে উপস্থাপন করা যায়। যেমনঃ

  • ১। সুন্দর করে কথা বলার প্রথম শর্ত হচ্ছে সঠিক উচ্চারণ। আপনি যার সাথে কথা বলছেন, সে যদি আপনার কথা বুঝতে নাই পারে তাহলে সে আপনার সাথে কথা বলার আগ্রহ হারিয়েই ফেলবে।
  • ২। বক্তা এবং শ্রোতা সব সময় একই মানসিক অবস্থায় থাকেন না। তাড়াহুড়ো করে বলতে গেলে যা বলতে যাই, তাই যদি বলা না হয়; তাহলে দ্রুত বলে লাভ নেই। তাই ধীরে কথা বলুন।
  • ৩। কথায় আত্মবিশ্বাস আনুন । আপনি নিজে কনফিডেন্ট থাকলে, হাসিখুশি থাকলে সামনের মানুষের মাঝেও তা ছড়িয়ে পড়বে। দরকার পরলে যে বিষয়ে কথা বলবেন, তা সম্পর্কে হালকা ধারণা নিয়ে যান।
  • ৪। মুদ্রাদোষ দূর করা । অনেক সময় এমন হয় যে আমরা কিছু কথা বারবার রিপিট করি। যেমনঃ বুঝেছ?, বুঝো নাই?, এইটা না??…….ইত্যাদি। এইসব কথা না বলাই উত্তম।
  • ৫। যার সাথে কথা বলছেন, তার চোখের দিকে তাকিয়ে বলার চেষ্টা করুন। বিষয়টা অস্বস্থিকর মনে হলেও বক্তা যেন না মনে হয় যে আপনি অন্যের কথা শুনছেন না।
  • টিপসঃ যদি চোখে তাকায় থাকিতে অস্বস্থি হয় তাহলে তার কপাল বা ভ্রুজোড়ার মাঝে তাকায় থাকলে আই-কন্টাক্ট এর কাজটি হয়ে যায়।
  • ৬। আপনার বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বা শারীরিক অঙ্গভঙ্গি কিন্তু কথার চেয়ে বেশি প্রকাশ করে।
  • ৭। কথা বলার আগে যেন একটু পরিকল্পনা করে নেই। বিশেষ করে কথোপকথনের শুরু এবং শেষ কি দিয়ে করবো তা আগেই ভেবে নেয়া; সেই সাথে কথার মাঝে যেন কোনোপ্রকার গিট্টু না লাগে সেদিকে খেয়াল রাখা।

ইনশাআল্লাহ নিয়মগুলো মেনে চললে আপনিও খুব সুন্দর ও গুছিয়ে কথা বলতে পারবেন। আপনি আপনার কথা বলার স্কিল আরো বাড়াতে চাইলে ইউটিউবে TED, TEDx Talks এর ভিডিওগুলো দেখতে পারেন।

আকাশ এর মতে যেথাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়:

এর মতে যেথাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়:

মুদ্রাদোষ মানে একই কথা বার বার রিপিট করা যাবে না। আমার ক্ষেত্রে মুদ্রাদোষ হচ্ছে “bro”।

কথা বলার সময় কোনো তাড়াহুড়ো করা যাবে। ভাবেন, চিন্তা করেন তারপর কথা বলুন।

ইমোশনের সাথে কথা বলুন। মজার কথা বলার সময় হাসুন।

আত্মবিশ্বাসের সাথে কথা বলুন।

প্ল্যানিং করে কথা বলুন। শুরুটা এবং শেষটা ঠিক করে, একটা ডেটলাইন তৈরি করে কথা বলুন।

Jiyaur Rahim এর মতে যেথাবে সুন্দর করে গুছিয়ে কথা বলা যায়:

এটার জন্য আপনাকে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলার চেষ্টা করতে হবে। যখন আপনি আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলবেন তখন নিজেকে বানাবে বিচারক আর আয়নাতে যাকে দেখা যাচ্ছে (মানে আপনাকেই আপনি দেখছেন) তাকে বানাবেন পরীক্ষার্থী।

তারপর আপনি কথা বলা শুরু করবেন। আর নিজেই নিজেকে বিচার করবেন। এভাবে প্রতিদিন আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলা শুরু করুন আর নিজের ভুলগুলো নিজেই খুঁজে বের করে ঠিক করে নিন।

আপনার কাছে যখন মনে হবে আয়নাতে যাকে দেখা যাচ্ছে সে অনেক গুছিয়ে কথা বলতে পারে, তখন আপনি মনে করবেন যে এখন আপনি গুছিয়ে কথা বলা শিখে গেছেন।

Related Articles