ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২২ ওয়ালটন ফ্রিজ বাংলাদেশ প্রাইস ২০২২

Walton fridge price

শীত বা গরম যেই সময়ের কথাই বলেন না কেন! মানুষের নিত্যদিনের সাথী এখন ফ্রিজ। আপনিও কি ফ্রিজের দাম ও ওয়ালটন ফ্রিজের নতুন মডেল সম্পর্কে জানতে চান? আপনি কি ওয়ালটন ফ্রিজের বর্তমান দাম কত জানতে চান? অথবা কিস্তিতে ওয়ালটন ফ্রিজের কেনার নিয়ম জানতে চান? আপনাদের এইসকল প্রশ্নের সমাধান ওয়ালটন ফ্রিজের আপডেট দাম ২০২২ নিয়ে হাজির হয়েছি। তাই ওয়ালটন ফ্রিজের কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ সম্পর্কে যানতে এই পোস্টটি পড়তে থাকুন।

দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের সাথে মানুষের ক্রয় ক্ষ্মতাও বাড়ছে তাই বেশির ভাগ মানুষ এখন বিভিন্ন মাধ্যমে ফ্রিজ কিনছেন। ফ্রিজ যারা কিনছেন তাদের ফ্রিজ কেনার আগে কিছু বিষয়ে সচেতন হতে হবে। প্রথমত, পরিবারের বা আপনার চাহিদা অনুযায়ী ফ্রিজের আকার নির্ধারন করে ফ্রিজ কেনা উচিত। আপনার পরিবারের যদি সদস্য কম হয় তাহলে ছোট ফ্রিজ কিনবেন। এবং পরিবারের যদি সদস্য বেশি হলে বড় ফ্রিজ কিনবেন।

আপনার পরিবার ছোট,বড়,মাঝারি যেমনই হোক না কেন, সব কিছুর সমধান আপনি দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন এর কাছে পাবেন সাশ্রয়ী মুল্যে। সব ধরনের ও সব সাইজের ফ্রিজ ওয়ালটন উৎপাদন করে। তাই আমরা আজকে আলোচনা করবো ওয়ালটন ফ্রিজের আপডেট দাম ২০২২ ওয়ালটন ফ্রিজের কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ নিয়ে। সকল তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত সাথে থাকুন।

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম কত? Walton ফ্রিজের নতুন মডেল, আপডেট ফ্রিজ প্রাইস ২০২২

ফ্রিজ কেনার কথা মাথায় আসলেই বেশ কিছু বিষয় নিয়ে মানুষকে দ্বিধায় পড়তে দেখা যায়। প্রথম চিন্তা হয় ফ্রিজের দাম নিয়ে। এর পরেই সবাই চিন্তা করে ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে। অনেকেই মনে করেন, ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ বেশ ঝামেলাপূর্ণ ও কঠিন কাজ এবং তাঁরা কেনার পর এর সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন না। আবার আরেকটি ধারণা হচ্ছে, ফ্রিজ চালালে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি আসে। অথচ বাস্তবে বিষয়গুলো বেশ ভিন্ন। মূলত, ফ্রিজ কেনার আগে ফ্রিজ সম্পর্কে একটু ধারণা রাখলে এসব বিষয় নিয়ে চিন্তায় পড়তে হয় না। তাই সকল তথ্য আপনাদের কাছে সহজে তুলে ধরার জন্যেই আজকের এই পোস্ট।

ওয়ালটন ডিপফ্রিজ প্রাইস ২০২২। ওয়ালটন ফ্রিজের দাম

ফ্রিজের দাম ব্র্যান্ড এর ওপর অনেকটা নির্ভর করে । বাজারে বর্তমানে ২০২২ সালে যে ফ্রিজ গুলো বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন আমরা আজকে সেই ফ্রিজ গুলোর দাম নিয়ে আলোচনা করব। যেহেতু আপনারা ফ্রিজ কিনবেন বলে চিন্তা তাই আপনাদের আগের দাম বা পূরনো মডেল বিষয়ে যানিয়ে জানিয়ে কোনো লাভ নেই। আপনাদের জানাতে হবে বর্তমান বাজার মূল্য এবং সেই অনুপাতে কি ধরনের ডিসকাউন্ট এবং কিস্তিতে নিলে কি ধরনের সুবিধা আছে । আমরা আমাদের এই পোস্ট জুড়ে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো।

ওয়ালটন নর্মাল এবং ডীপ ফ্রিজ প্রাইস বিডি ২০২২

সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চমানের রেফ্রিজেরটর দিয়ে দেশের বাজারে শীর্ষস্থান দখল করেছে ওয়ালটন। এর পাশাপাশি এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটন ফ্রিজ।এছাড়া দেশের ভেতরে ক্রেতারা ঘরে বসে ফোন করলেই কাছাকাছি প্লাজা অথবা ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম থেকে ক্যাশ অন ডেলিভারি সুবিধায় ওয়ালটন পণ্য পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। তাই গ্রাহক চাহিদা ও বিক্রিতে শীর্ষে এখন ওয়ালটন ফ্রিজ ।

ওয়ালটন ফ্রিজের নতুন মডেল ২০২২

ওয়ালটন বর্তমানে বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় ইলেক্টট্রনিক পন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাই তাদের পন্য ভান্ডার ও অফুরন্ত । প্রতিনিয়তই ওয়ালটন তাদের ফ্রিজে বিভিন্ন মডেল যুক্ত করছে এবং বিভিন্ন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছে। এই নতুন মডেল ও নতুন ফিচার গুলো যদি সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাকে ওয়ালটন এর নতুন মডেলের ফ্রিজ কিনতে হবে। তাই এখনে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের বিভিন্ন নতুন মডেলের ফ্রিজের সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার যার মাধ্যমে আপনি ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে সেরা সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন।

আজকের ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ।ওয়ালটনের বড় সাইজের এবং দামি ফ্রিজ এর তালিকা

ওয়ালটনের ফ্রিজের কম্প্রেসরে ১২ বছরের গ্যারান্টি, ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি সুবিধা, এক্সচেঞ্জ অফারে
যেকোনো ব্র্যান্ডের ফ্রিজ বদলে ওয়ালটনের নতুন ফ্রিজ কেনার সুযোগ রয়েছে। বর্তমানে বাজারে আপনি যদি ওয়ালটনের সর্বনিম্ন দামে ওয়ালটনের ফ্রিজ কিনতে চান তাহলে আছে WALTON WFO-JET-RXXX-XX । যেহেতু সর্বনিম্ন দামের ফ্রিজ তাই এটার আকৃতিও ছোট হবে। এই ফ্রিজ ছোট পরিবারের জন্য উপযোগী। ওয়ালটনের যেসকল ছোট ফ্রিজ রয়েছে তার মধ্যে এটি সবচেয়ে ছোট। এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে ১০৯৯০ টাকা। এটি ৫০ লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন । এছাড়া ছোট আকৃতির মডেল : WFO-1X1-0101, ৯৩ লিটার ১৩৫৫৫ টাকা।

মাঝারি দামের মধ্যে ফ্রিজ কিনতে চাইলে এখন যেটি দেখা্ছি এটি মোটামুটি ভালো হতে পারে । এই ফ্রিজটির মডেল হচ্ছে WFO-1A5-RXXX-XX. ওয়ালটনের এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে ১৪ হাজার ৩০০ টাকা। যার ধারণক্ষমতা ১০৭ লিটার। এচ ওয়ালটনের WFD-1B6-RXXX এই ফ্রিজটি নিতে পারেন । এই ফ্রিজে নরমাল এবং ডিপ মোড দুটোই রয়েছে। ১৩২ লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন এই রেফ্রিজারেটরের দাম ধরা হয়েছে ১৪ হাজার ২০০ টাকা।

অনেক দিন থেকে ওয়ালটন বিশ্বমানের ফ্রিজ নির্মাণ করছে ও রপ্তানি করছে। ওয়ালটনের বড় সাইজের ফ্রিজ গুলো অবশ্যই মানে এবং গুণের দিক দিয়ে দাম বিবেচনা করলে অনেক ভালো । এবার ওয়ালটনের বড় সাইজের ফ্রিজ গুলোর দাম জেনে নেই। WFC-3F5-GDNE-XX (Inverter),WFC-3F5-GDXX-XX (Inverter), WFE-3E8-GDXX-XX, WFC-3D8-GDEH-DD (Inverter), WFB-2E4-GDSH-XX এগুলো ওয়ালটনের বড় মাপের ফ্রিজ।

কিস্তিতে ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার নিয়ম

ওয়ালটন ফ্রিজ কিস্তিতে কিনতে হলে আপনাকে প্রথমে সরাসরি ওয়ালটন শোরুম বা ই-প্লাজায় যেতে হবে। তারপরে তাদের সঙ্গে আলোচনা যে আপনি তাদের থেকে কিস্তিতে ফ্রিজ কিনতে চান তারপরে সেই ই-প্লাজার সেলস ম্যানই আপনার সব ব্যাবস্থা করে দিবে। তবে ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে ৪০% ডাউন পেমেন্ট করতে হবে। অর্থাৎ ফ্রিজের যে বাজার মূল্য রয়েছে সেখান থেকে আপনাকে ৪০% টাকা প্রথমেই জমা দিতে হবে এবং পরবর্তীতে বাকি যেই ৬০% টাকা থাকবে সেটা কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। অনেক সময় কিস্তিতে ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে আপনাকে ডিসকাউন্টও প্রদান করা হবে।