মিনারা বেগমের উদ্যোগটি মূল্যায়ন কর।

196 viewsকৃষি শিক্ষা
0

মিনারা বেগমের উদ্যোগটি মূল্যায়ন কর। Class 8 Agriculture 6th Week Assignment Answer. ক্লাস ৮ / অষ্টম শ্রেণীর এর কৃষিশিক্ষা ষষ্ঠ সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান। Oshtom Srenir Krishi Sikkha 6 Soptaher Assignment Er Uttor ba Somadhan. Class Eight 2nd & Last Agriculture Assignment Solve 2020.

An initiative of Minara Begum has been mentioned in the creative question of the sixth week agricultural education assignment of eighth grade. As an initiative, Minara Begum decided to cultivate fish in a pond next to her house. We will evaluate his initiative as an answer to the question.

মিনারা বেগমের উদ্যোগটি মূল্যায়ন কর।

অষ্টম শ্রেণীর ষষ্ঠ সপ্তাহের কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট এর সৃজনশীল প্রশ্নে মিনারা বেগম এর একটি উদ্যোগ এর কথা বলা হয়েছে। উদ্যোগ হিসেবে মিনারা বেগম তার বাড়ির পাশের পাশের পুকুরে মাছ চাষ করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রশ্নের উত্তর হিসাবে আমরা তার উদ্যোগটি মুল্যায়ন করবো।

সৃজনশীল প্রশ্ন:

১। সখিপুর গ্রামের মিনারা বেগম বাড়ির পাশের ৫ শতক জমির পুকুরে রুই, কাতলা, সিলভার কার্প ও কার্পিও জাতের মাছ চাষের উদ্যোগ নেন। এজন্য তিনি মৎস্য কর্মকর্তার পরামর্শ নিয়ে প্রয়ােজনীয় চুন, সার প্রয়ােগ করে পুকুর প্রস্তুত করেন।

খ) মিনারা বেগমের উদ্যোগটি মূল্যায়ন কর।

উত্তরঃ উদ্দীপকে মিনারা বেগম তার ৫ শতক পুকুরের জমিতে বিভিন্ন ধরনের মাছ চাষ করবেন। যা মিশ্র চাষ পদ্ধতি নামে পরিচিত। এই চাষ পদ্ধতিতে লাভবান হওয়ার জন্য তাকে বেশ কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে। যেমন

পুকুরের পাড় ও তলদেশ মেরামতঃ পুকুররর পাড় ভাঙ্গা থাকল তা উঁচু করে বেঁধে দিতে হবে। পুকুরের তলায় অতিরিক্ত কাঁদা থাকলে গ্যাসের সৃষ্টি হয়। এই বিষয়গুলো সম্পর্কে মিনারা বেগমকে সচেষ্ট থাকতে হবে।

আগাছা পরিষ্কারঃ পুকুরে কচুরিপানা, ক্ষুদিপানা ইত্যাদি পুকুরে মাছেরর খাদ্য প্লাংটন নষ্ট করে ও সূর্যের আলো পড়তে বাধা দেয়। এগুলে নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে।

রাক্ষুসে ও অপ্রয়োজনীয় মাছ অপসারণঃ পুকুরে বিভিন্ন রাক্ষুসে মাছ থাকলে তা অন্যান্য মাছেদের খেয়ে ফেলে। তাই পুকুর থেকে বিভিন্ন রাক্ষুসে ও অপ্রয়োজনীয় মাছ অপসারণ করতে হবে।

চুন প্রয়োগঃ পুকুর শুকনা হলে প্রতি শতকে (১-২) কেজি চুন পাউডার করে তলায় ছিটিয়ে দিতে হবে।

সার প্রয়োগঃ পুকুরে প্রাকৃতিক খাদ্য তৈরি জন্য সার প্রয়োগ করতে হবে। এক্ষেত্রে জৈব ও অজৈব সার পরিমাণ মাফিক জমিতে প্রয়োগ করেতে হবে।

পানিতে প্রাকৃতিক খাদ্য পরীক্ষাঃ সার প্রয়োগের ৫-৭ দিন পর পুকুরের পানিতে প্রাকৃতিক খাদ্য তৈরি হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করতে হবে।

মন্তব্যঃ উপরে উল্লেখিত ধাপগুলো অনুসরণ করে মিনারা বেগম তার পুকুরটি মিশ্রপদ্ধতিতে মাছ চাষের জন্য উপযোগী করে তুলতে পারবেন। এবং তার পুকুরটি মাছ চাষের উপযোগী হয়ে উঠবে। পুকুরে পোনা ছাড়া থেকে মাছ আহরণ করা পর্যন্ত সকল ধাপ গুলো তিনি যদি অনুসরণ করেন তবে অল্প সময়ে তিনি মাছ চাষ করে অধিক লাভবান হতে পারবেন।

Changed status to publish
Add a Comment
Write your answer.