ধর্মীয় নৈতিক শিক্ষামূলক যে কাজটি তুমি চর্চা কর (দেশপ্রেম / অধ্যাবসায়) তার বর্ণনায় নিচের বিষয়গুলাে অন্তর্ভুক্ত করে একটি প্রতিবেদন তৈরি কর।

197 viewsহিন্দু ধর্ম
0

ধর্মীয় নৈতিক শিক্ষামূলক যে কাজটি তুমি চর্চা কর (দেশপ্রেম / অধ্যাবসায়) তার বর্ণনায় নিচের বিষয়গুলাে অন্তর্ভুক্ত করে একটি প্রতিবেদন তৈরি কর। Make a report by including the following topics in the description of the work you practice (patriotism / perseverance) in religious moral education. Class 6 Hinduism 5th Week Assignment Answer, 5th Soptaher Hindu Dhormo Assignment Somadhan, ষষ্ঠ শ্রেণীর ৫ম সপ্তাহের হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা সমাধান। 2nd Hinduism and Moral Education Assignment Solution 5th Week For Class6. Assignment Task 2.

ধর্মীয় নৈতিক শিক্ষামূলক যে কাজটি তুমি চর্চা কর (দেশপ্রেম / অধ্যাবসায়) তার বর্ণনায় নিচের বিষয়গুলাে অন্তর্ভুক্ত করে একটি প্রতিবেদন তৈরি কর।

নির্ধারিত কাজ- ২

অধ্যায় ও বিষয়বস্তুর শিরােনাম

ষষ্ঠ অধ্যায়: ধর্মীয় উপাখ্যানে নৈতিক শিক্ষা

এ্যাসাইনমেন্ট / নির্ধারিত কাজ

ধর্মীয় নৈতিক শিক্ষামূলক যে কাজটি তুমি চর্চা কর (দেশপ্রেম / অধ্যাবসায়) তার বর্ণনায় নিচের বিষয়গুলাে অন্তর্ভুক্ত করে একটি প্রতিবেদন তৈরি কর।

(১) কাজের ধারণা

(২) কাজের উদ্দেশ্য

(৩) ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা

(৪) কাজটি করে তােমার অনুভূতি

(৫) কাজের গুরুত্ব

উত্তর: ধর্মীয় নৈতিক শিক্ষামূলক আমি অনেক কাজই করে থাকি। যেমন সত্য কথা বলা, অধ্যাবসায়, দেশ প্রেম ইত্যাদি। নিম্নে আমি অধ্যাবসায় সম্পর্কে লিখবো।

১। অধ্যাবসায়ের ধারণা: অধ্যাবসায় শব্দের অর্থ অবিরাম সাধনা বা ক্রমাগত চেষ্টা। কোন কাজে সফল হওয়ার জন্য মানুষের বার বার যে চেষ্টা তারই নাম অধ্যাবসায়।

২। অধ্যবসায়ের উদ্দেশ্য: মানব জীবনে অধ্যবসায়ের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। অধ্যবসায়ের কিছু উদ্দেশ্য আছে। যেমন:

  • নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর মনোযোগী হওয়া যায়।
  • লক্ষ স্থির থাকে।
  • কোন কাজ স্থির করে সফলতা আসার আগে পযন্ত বারংবার চেষ্টা করার ফলে ঐ নির্দিষ্ট কাজে সফলতা আসবেই।

[প্রশ্ন সমাধান করেছে- NewResultBD.Com]

৩। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা: যেহেতু আমি একজন ছাত্র আমার জীবনে ছাত্র জীবনের গুরুত্ব অপরিসীম। উদাহরণ হিসেবে আমি আমার পড়াশোনার কথা বলতে চাই। কোন বিষয় পাঠ করতে গলে আমার ভীষণ কঠিন মনে হয় কিন্তু যখন আমি অধ্যবসয়ী হয়ে বার বার ঐ বিষয়টি নিয়ে পড়াশোনা করি তখন এটি আমার কাছে খুব সহজ হয়ে যায়। তবে পাশাপাশি এটাও বলতে চাই। অধ্যবসয়ী হওয়া সহজ কোন বিষয় নয়। এর জন্য মনস্থির এবং অনেক বেশি পরিশ্রমী হতে হয়।

৪। কাজটি করে আমার অনুভূতি: অধ্যবসায় দ্বারাই মানুষ প্রাচীন যুগ, মধ্যযুগ পেরিয়ে বর্তমান যুগে পদাপর্ণ করেছে। অধ্যবসায় জীভনে উন্নতির মূল এবং সফলতা অর্জনের চাবিকাঠি। অধ্যবসয়ী হিসেবে যদি আমার অনুভূতি জানতে চাওয়া হয় তবে আমি বলবো কোন কাজই সহজে হয়না। অধ্যবসয়ী হতে আমার অনেক সময় লেগেছে। অনেক ত্যাগ, আনন্দ, উৎসব ত্যাগ করতে হয়েছে। কিন্তু পাশাপািশি একটা অনাবিল সুখও উপভোগ করেছি। যা কোন উৎসব আনন্দকে হার মানায়। অধ্যবসয়ী হয়ে কিছু পাওয়ার আনন্দ চিরসুখের। যা আমি এখন বুঝেছি। যে সুখ আমি অন্য কিছুতে পাইনা। আর এটাও জানি যদি ভবিষ্যতে কোন বিষয়ে সফলতা অর্জন করতে চাই তাহলে অবশ্যই তার একমাত্র পন্থা হবে অধ্যবসায়।

৫। অধ্যবসায়ের গুরুত্ব: এ পৃথিবীতে জ্ঞান বিজ্ঞানের যারা সেরা, বিশ্ববিখ্যাত তাঁরা সবাই অধ্যবসয়ী ছিলেন। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসেও রয়েছে অধ্যবসায়ের উজ্জ্বল দৃষ্ঠান্ত। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে অধ্যবসয়ের বড় প্রয়োজন। দুঃখ বেদনা এবং হাতাশা যাতে মানুষকে গ্রাস করতে না পারে সে জন্য প্রতিটি মানুষকে অধ্যবসয়ী হতে হবে। অধ্যবসায় সব উন্নতি ও সাফল্যের মূলমন্ত্র।

Changed status to publish
Add a Comment
Write your answer.