মার্সেল এসির দাম । Marcel এসির নতুন মডেল ২০২২

Marcel AC Price

মার্সেল এসির দাম কত? Marcel এসির নতুন মডেল ২০২২

শীত বা গরম যেই সময়ের কথাই বলেন না কেন! মানুষের নিত্যদিনের সাথী এখন এসি। আপনিও কি এসির দাম ও মার্সেল এসির নতুন মডেল সম্পর্কে জানতে চান? আপনি কি মার্সেল এসির বর্তমান দাম কত জানতে চান? অথবা কিস্তিতে মার্সেল এসি কেনার নিয়ম জানতে চান?আপনাদের এইসকল প্রশ্নের সমাধান মার্সেল এসির আপডেট দাম ২০২২ নিয়ে হাজির হয়েছি। তাই মার্সেল এসি কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা মার্সেল এসির মূল্য তালিকা ২০২২ সম্পর্কে যানতে এই পোস্টটি পড়তে থাকুন।

দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের সাথে মানুষের ক্রয় ক্ষ্মতাও বাড়ছে তাই অনেকে এখন এসি কিনছেন। এসি যারা কিনছেন তাদের এসি কেনার আগে কিছু বিষয়ে সচেতন হতে হবে। প্রথমত, বাড়ির ধরন বা আকার বুঝে এসি কেনা উচিত। যে রুমে এসি লাগাবেন তাতে যদি জানালা থাকে তবে পছন্দ অনুসারে ভালো ব্র্যান্ড দেখে ‘উইন্ডো এসি’ কিনে নিতে পারেন। আপনার ঘরের আকার যদি ছোট হয় তাহলে এ ধরনের এসি কেনা যেতে পারে। ঘরের আকার বড় হলে বড় লাগবে এসি এবং ঘরের আকার ছোট হলে ছোট এসি।

 

আপনার ঘর ছোট,বড়,মাঝারি যেমনই হোক না কেন, সব কিছুর সমধান আপনি দেশীয় ব্যান্ড মার্সেল এর কাছে পাবেন সাশ্রয়ী মুল্যে। সব ধরনের ও সব সাইজের এসি মার্সেল উৎপাদন করে। তাই আমরা আজকে আলোচনা করবো মার্সেল এসির আপডেট দাম ২০২২ মার্সেল এসি কিস্তিতে কেনার নিয়ম বা মার্সেল এসির মূল্য তালিকা ২০২২নিয়ে। সকল তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত সাথে থাকুন।

 

মার্সেল এসি প্রাইস বিডি ২০২২

এসি কেনার কথা মাথায় আসলেই বেশ কিছু বিষয় নিয়ে মানুষকে দ্বিধায় পড়তে দেখা যায়। প্রথম চিন্তা হয় এসির দাম নিয়ে। এর পরেই সবাই চিন্তা করে এসির রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে। অনেকেই মনে করেন, এসি রক্ষণাবেক্ষণ বেশ ঝামেলাপূর্ণ ও কঠিন কাজ এবং তাঁরা কেনার পর এর সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন না। অনেকেই মনে করেন এসি রক্ষণাবেক্ষণ অনেক ব্যয়বহুল আবার আরেকটি ধারণা হচ্ছে, এসি চালালে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি আসে। অথচ বাস্তবে বিষয়গুলো বেশ ভিন্ন।
মূলত, এসি কেনার আগে এসি সম্পর্কে একটু ধারণা রাখলে এসব বিষয় নিয়ে চিন্তায় পড়তে হয় না। তাই সকল তথ্য আপনাদের কাছে সহজে তুলে ধরার জন্যেই আজকের এই পোস্ট।

 

আজকের মার্সেল এসির মূল্য তালিকা । Marcel এসির দাম ২০২২

এসির দাম ব্র্যান্ড এর ওপর এসির দাম অনেকটা নির্ভর করে । বাজারে ‘টন’ হিসেবে এসি পাওয়া যায় এবং যে ঘরে এসি লাগানো হবে, তার আয়তনের ওপর নির্ভর করে এসি কিনতে হয়। এসির ক্ষমতা যাচাইয়ের পরেই আসে স্প্লিট নাকি উইন্ডো এসি ভালো হবে, সে প্রশ্ন। উইন্ডো এসিতে আওয়াজ বেশি হয় বলে স্প্লিট এসিই সাধারণত সবার প্রথম পছন্দ। এ ছাড়া স্প্লিট এসিতে ঘর বেশ দ্রুত ঠান্ডাও হয়।

বর্তমানে ২০২২ সালে যে এসি গুলো বাজারে ছেড়েছে মার্সেল আমরা আজকে সেই এসি গুলোর দাম নিয়ে আলোচনা করব। যেহেতু আপনারা এসি কিনবেন বলে চিন্তা তাই আপনাদের আগের দাম বা পূরনো মডেল বিষয়ে যানিয়ে জানিয়ে কোনো লাভ নেই। আপনাদের জানাতে হবে বর্তমান বাজার মূল্য এবং সেই অনুপাতে কি ধরনের ডিসকাউন্ট এবং কিস্তিতে নিলে কি ধরনের সুবিধা আছে । আমরা আমাদের এই পোস্ট জুড়ে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো।

 

মার্সেল এসি প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২২

সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চমানের এয়ার কন্ডিশনার দিয়ে দেশের বাজারে শীর্ষস্থান দখল করেছে মার্সেল । এর পাশাপাশি এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে মার্সেল এসি। এছাড়া দেশের ভেতরে ক্রেতারা ঘরে বসে ফোন করলেই কাছাকাছিা ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম থেকে ক্যাশ অন ডেলিভারি সুবিধায় মার্সেল পণ্য পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। তাই গ্রাহক চাহিদা ও বিক্রিতে শীর্ষে এখন মার্সেল এসি। 

 

মার্সেল ইনভার্টার, নন-ইনভার্টার এসি

আপনারা নিশ্চয় লক্ষ্য করেছেন, অনেক ইলেকট্রনিক্স পণ্যের গায়েই এই ইনভার্টার বা নন-ইনভার্টার লেখা থাকে। এসব পণ্যের দাম আর সুবিধাতেও থাকে অনেক পার্থক্য। ইনভার্টার এসির মধ্যে সুবিধা হচ্ছে যে, ইনভার্টার এসির কম্প্রেসার
প্রয়োজনমত নিজস্ব চলার গতি পরিবর্তন করতে পারে। ইনভার্টার এসিতে এমন একটি সেন্সর থাকে যেটি ঘরের তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে কম্প্রেশারটিকে পুরোপুরি বন্ধ না করে, মোটরটির চলার গতি কমিয়ে দেয়। এর কারণেই বিদ্যুৎ খরচ কমে আসে। অপরদিকে, সাধারণ বা নন ইনভার্টার এসির কম্প্রেসার বার বার চালু বন্ধ হয় তাই অনেক বেশি বিদ্যুৎ খরচ করে। সাধারণ এসিতে প্রতিবার কম্প্রেসার ইউনিট চালু হবার সময় অনেক বিদ্যুৎ টানে, এ কারণেই মূলত বিদ্যুৎের খরচ বাড়ে, ফলে বিলও বেশি আসে।

 

এসির নতুন মডেল ২০২২

মার্সেল বর্তমানে বাংলাদেশে বড় ইলেক্টট্রনিক পন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাই তাদের পন্য ভান্ডার ও অফুরন্ত । প্রতিনিয়তই মার্সেল তাদের এসিতে বিভিন্ন মডেল যুক্ত করছে এবং বিভিন্ন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছে। এই নতুন মডেল ও নতুন ফিচার গুলো যদি সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাকে মার্সেল এর নতুন মডেলের এসি কিনতে হবে। তাই এখনে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের বিভিন্ন নতুন মডেলের এসির সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার যার মাধ্যমে আপনি মার্সেল এসি কেনার ক্ষেত্রে সেরা সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন।

 

 

মার্সেল ইনভার্টার এসির দাম ২০২২

এটি বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান ইলেকট্রনিক হোম অ্যাপ্লায়েন্স ব্র্যান্ড। তাদের প্রধান ক্রিয়াকলাপগুলি হ’ল উত্পাদন, গৃহস্থালী যন্ত্রপাতি, রপ্তানি, অটোমোবাইল ইলেকট্রনিক্স, ডিজাইনিং এবং ভোক্তাদের খুচরা বিক্রয়। লক্ষণীয়, তাদের ফোকাস হোম ইলেকট্রনিক্স পণ্য তাদের এয়ার কন্ডিশনার। মার্সেল এয়ার কন্ডিশনারগুলি তাদের ভারী কার্যক্ষমতা এবং উচ্চ গিয়ার যুক্ত প্রযুক্তির জন্য পরিচিত। এটি অত্যধিক বিদ্যুতের বিল প্রতিরোধ করার পাশাপাশি তাদের বলিষ্ঠ ডিজাইন এবং আড়ম্বর পূর্ণ চেহারা রোধ করতে সহায়তা করে। তাদের দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহারের ক্ষমতা এবং ভালভাবে কাজ করা তাদের এয়ার কন্ডিশনারগুলিকে বেশ জনপ্রিয় করে তুলেছে।

বর্তমানে বেশকিছু মার্সেল এসি বাজারে রয়েছে , বাজারে থাকা এসি গুলোর মডেল নাম,দাম ও বিস্তারিত নিচে দেওয়া হলোঃ

Marcel MSN-RIVERINE-24B AC

স্প্লিট টাইপ

2 টন ক্ষমতা, রেফ্রিজারেন্ট R410। ঠান্ডা করার ক্ষমতা 24000 BTU। কম্প্রেসার টাইপ রোটারি। টাইমার, এই মডেলের এসি দাম ৫৬ হাজার টাকা।

Marcel MSI-KRYSTALINE-24C AC

স্প্লিট টাইপ

2 টন ক্ষমতা, রেফ্রিজারেন্ট R410, ঠান্ডা করার ক্ষমতা 240000 BTU। কম্প্রেসার টাইপ রোটারি, টাইমার। এই মডেলের এসি দাম ৭৫ হাজার টাকা।

Marcel MSI-VENTURI-24C

2 টন ক্ষমতা, রেফ্রিজারেন্ট R-410a। ঠান্ডা করার ক্ষমতা, 24000 BTU/ঘন্টা। এই মডেলের এসি দাম ৭৪ হাজার টাকা।

 

Marcel MSN-VENTURI-24B (24000 BTU/hr) Split AC

মার্সেল MSN-VENTURI-24B (24000 BTU/hr) স্প্লিট এসি সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন

শীতল করার ক্ষমতা (ওয়াট): 7000। রেটেড ইনপুট পাওয়ার (ওয়াট): 2273। পাওয়ার সাপ্লাই (ফেজ/ভোল্টেজ (V) /ফ্রিকোয়েন্সি (Hz) /কারেন্ট (A)): একক/ 230/ 50/ 10.02

কুলিং বৈশিষ্ট্য

কম্প্রেসার প্রকার: রোটারি (নন-ইনভার্টার)

রেফ্রিজারেন্ট প্রকার: R-22/R410A

রেফ্রিজারেন্ট পরিমাণ (কেজি): 1.74 (4 মিটার সার্ভিস পাইপের জন্য)

টার্বো মোড (সর্বোচ্চ কুলিং), অটো অপারেশন, গতি সেটিং (স্বয়ংক্রিয়, উচ্চ, মাঝারি, নিম্ন)।এই মডেলের এসি দাম ৫৬ হাজার টাকা।

 

কিস্তিতে মার্সেল এসি কেনার নিয়ম

মার্সেল এসি কিস্তিতে কিনতে হলে আপনাকে প্রথমে সরাসরি মার্সেল শোরুম যেতে হবে।তারপরে তাদের সঙ্গে আলোচনা যে আপনি তাদের থেকে কিস্তিতে এসি কিনতে চান তারপরে সেই সেলস ম্যানই আপনার সব ব্যাবস্থা করে দিবে। তবে এসি কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে ৪০% ডাউন পেমেন্ট করতে হবে। অর্থাৎ এসির যে বাজার মূল্য রয়েছে সেখান থেকে আপনাকে ৪০% টাকা প্রথমেই জমা দিতে হবে এবং পরবর্তীতে বাকি যেই ৬০% টাকা থাকবে সেটা কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। অনেক সময় কিস্তিতে এসি কেনার ক্ষেত্রে আপনাকে ডিসকাউন্টও প্রদান করা হবে।

আশাকরি এই আর্টিকেলটি আপনার উপকার করেছে। শেষ পর্যন্ত সাথে থাকার জন্যে ধন্যবাদ।