Others

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন / রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন অনলাইন রেজিস্ট্রেশন

ইতিমধ্যে আমাদের দেশে কোভিড-19 টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোভিড-19 টিকা প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।কোভিড-19 টিকা নিতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের pre-registration এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। সুতরাং যারা কোভিড-19 টিকা নিতে ইচ্ছুক তাদের অনলাইন অথবা অ্যাপসের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। পূর্বনির্ধারিত রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কোন ব্যক্তিকে টিকা প্রদান করা হবে না।

যেকোনো ব্যক্তি ঘরে বসেই টিকা নেওয়ার জন্য নাম নিবন্ধন করতে পারবেন। কোভিড-19 টিকা গ্রহণের নিবন্ধনের জন্য দুটি পদ্ধতি বর্তমানে চালু রয়েছে। একটি হলো সুরক্ষা অ্যাপ ব্যবহার করে কোভিড-19 টিকা নিবন্ধন করুন এবং অপরটি হল https://surokkha.gov.bd/ ওয়েবসাইট ভিজিট করে নাম নিবন্ধন করুন। বাংলাদেশের আইসিটি বিভাগ কোভিড-19 ভ্যাকসিন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সুরক্ষা অ্যাপটি চালু করেছে। 2 টি ধাপে কোভিড-19 টিকা প্রদান কার্যক্রমটি সম্পন্ন করা হবে। টিকা গ্রহণের নিবন্ধনের জন্য দুইটি ভাষার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। একটি হলো বাংলা এবং অপরটি ইংরেজি।

Contents

কোভিড -19 ভ্যাকসিন নিবন্ধন ফর্ম

কোভিড -১৯ টিকা দেওয়ার নিবন্ধন ফর্মটি পেতে প্রথমে shurokkha.gov.bd দেখুন।
ওয়েবসাইটে প্রবেশের পরে আপনাকে নিবন্ধকরণ বোতামে ক্লিক করতে হবে। তারপরে প্রদত্ত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে একের পর এক নিবন্ধন ফর্ম পাওয়া যাবে। ফর্মগুলি নীচে সরবরাহ করা হয়েছে।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন

 

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন

কোভিড -19 টিকা নিবন্ধন প্রক্রিয়া

কোভিড -19 টিকা নিবন্ধন প্রক্রিয়া এর প্রথম ধাপ হলো :

  • Surokkha.gov.bd সাইটে ভিজিট করতে হবে
  • এরপর নিবন্ধন বাটনে ক্লিক করতে হবে

এবং নাগরিক শ্রেণি সিলেক্ট করতে হবে। অর্থাৎ যে ব্যক্তি  টিকা গ্রহণ করতে ইচ্ছুক সে কোন শ্রেণীর বা কোন পেশার মানুষ তা নির্ধারণ করে দিতে হবে। নাগরিক শ্রেণীর মধ্যে যে সকল ক্যাটাগরি রয়েছে তা নিম্নে দেওয়া হল।

  • সরকারি স্বাস্থ্যকর্মী
  • বেসরকারি স্বাস্থ্য কর্মী
  • বীর মুক্তিযোদ্ধা
  • আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী
  • সামরিক আধাসামরিক প্রতিরক্ষা বাহিনী
  • রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন কার্যালয়
  • গণমাধ্যমকর্মী
  • জনপ্রতিনিধি
  • সিটি ও পৌর কর্মী
  • এর পর জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর এবং জন্মতারিখ দিতে হবে।
  • তারপর যাচাই বাটনে ক্লিক করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিচয় নিশ্চিত করতে হবে। 
  • পরবর্তি ধাপে দীর্ঘমেয়াদি রোগ, কোমরবিডিটি আছে কিনা ‘হ্যাঁ’ অথবা ‘না’ সিলেক্ট করতে হবে।
  • এরপর নিবন্ধনকারী নাগরিকের পেশা এবং সরকারি কোভিড-১৯ কাজের সাথে জড়িত কি-না তা নির্বাচন করতে হবে।
  • এ পর্যায়ে যে মোবাইলে ভ্যাকসিনের তথ্য ও ভেরিফিকেশন এসএমএস পেতে চান তা নিবন্ধনের সময় দিতে হবে।
  • পরে ফরমে বর্তমান ঠিকানা ও টিকাদান কেন্দ্র নির্বাচন করতে হবে।
  • আর সব শেষে মোবাইলে প্রাপ্ত OTP দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে।
  • নিবন্ধন সম্পন্ন হলে ‘টিকা কার্ড সংগ্রহ’ বাটনে ক্লিক করে কার্ড সংগ্রহ করতে হবে।
  • নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে নির্ধারিত সময়ে এসএমএসে টিকা গ্রহণের তারিখ ও কেন্দ্র জানানো হবে।
  • টিকা কেন্দ্রে যাওয়ার সময় প্রিন্টেড টিকা কার্ড ও জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি সঙ্গে নিতে হবে।

কোভিড -19 টিকা নিবন্ধন প্রক্রিয়া ডাউনলোড করুন

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন অ্যাপ

  • সর্বপ্রথম Surokkha.gov.bd  এর একটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিবেন।
  • এরপর অ্যাপ টিতে প্রবেশ করে  কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন প্রক্রিয়া অংশটি ভালো ভাবে অনুসরণ করবেন।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন অ্যাপ

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন প্রক্রিয়া  অংশে কিভাবে  টিকা গ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে হয় তা বিস্তারিত বর্ণনা করা রয়েছে।  অতএব এ বিষয়ে নতুন করে বলার কিছুই নেই।  টিকা গ্রহণের জন্য নিবন্ধন প্রক্রিয়া টি অত্যন্ত সহজ।  সুতরাং যারা টিকা গ্রহণের জন্য নিবন্ধন করতে আগ্রহী তারা অবশ্যই নির্ধারিত প্রক্রিয়াটি অনুসরণ করবেন।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন নোটিফিকেশন 

কোভিড-১৯ টিকার জন্য নিবন্ধনের পর টিকাদান কার্ডটি সংগ্রহ করে নিতে হবে। কার্ডটি সংগ্রহের জন্য টিকা কার্ড ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করে টিকা কার্ডটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। টিকা  কার্ডটি ডাউনলোড করার সময়  মোবাইল নাম্বারে  নোটিফিকেশন আকারে একটি ওটিপি  এসএমএস আসবে। 

এসএমএস দিতে একটি নাম্বার থাকবে সেই নাম্বারটি প্রদান করে টিকা কাটি ডাউনলোড করতে হবে। এর প্রধান কারণ হলো নির্দিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া অন্য কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যক্তি যেন টিকা কার্ড টি ডাউনলোড করে নিতে না পারে।  পরবর্তীতে এসএমএসের মাধ্যমে অথবা যারা অ্যাপ ইউজ করেন তাদের নোটিফিকেশন আকারে টিকা প্রদানের দিন এবং স্থান জানিয়ে দেওয়া হবে।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন পার্শপতিক্রিয়া 

ফেব্রুয়ারি মাসের 8 তারিখ থেকে বাংলাদেশের প্রায় সকল স্বাস্থ্যসেবা কমপ্লেক্সে ভ্যাকসিন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদানের কার্যক্রম চালু রয়েছে।  ইতিমধ্যে প্রায় লক্ষাধিক ব্যক্তিকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে।  এখনো পর্যন্ত এই কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের তেমন কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যায়নি। 

এ বিষয়ে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে  বিভিন্ন ধরনের অপপ্রচার চালানো হয়েছে।  যার ফলে কোভিড-১৯  ভ্যাকসিন বিষয়ে জনসাধারণের মাঝে নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়েছে।  যার কারণে অনেকেই ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য অনীহা প্রকাশ করেছে। কিন্তু বর্তমানে এই ধারণা থেকে অনেকেই বেরিয়ে আসছে। বর্তমানে সকলেই ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য আগ্রহী জনসাধারণের মাঝে এমন প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে। তবে কোনো কোনো ব্যক্তির ক্ষেত্রে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের  কি সাইড ইফেক্ট দেখা দিতে পারে। নিম্নে সেগুলো বর্ণনা করা হলো।

অন্য সকল ঔষধ কিংবা টিকার মতো এই টিকারও কিছু পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেগুলো খুবই মৃদু হয়ে থাকে যেমন – টিকার স্থানে ব্যথা, ফোলা, লালচে ভাব, মাংশপেশী ও অস্থিসন্ধিতে ব্যথা, দুর্বলতা, বমি বমি ভাব, জ্বর, ক্লান্তি ইত্যাদি। ক্লিনিকাল ট্রায়াল হতে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী এখনও পর্যন্ত মারাত্মক কোন পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানা যায়নি। তবে আপনার যে কোন সমস্যা হলে অবশ্যই দ্রুত নিকটস্থ হাসপাতালে যান এবং চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহন করুন।

তবে এগুলো নিয়ে চিন্তার কিছুই নেই । উপরোক্ত লক্ষনগুলো অসাভাবিক কিছু না ।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন বিষয়ক সচরাচর জিজ্ঞাসা

নিবন্ধনের শেষ পর্যায়ে OTP পাই নাই করণীয় কি?

আপনি OTP পুনরায় পাঠাতে পারেন। ভুলবশত OTP প্রদানের স্ক্রিনটি বন্ধ করে দিলে পুনরায় নিবন্ধন প্রক্রিয়া করতে পারবেন।

কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন করতে ইচ্ছুক, কিভাবে অনলাইনে নিবন্ধন করব?

www.surokkha.gov.bd ওয়েব পোর্টালে প্রবেশ করে অথবা গুগল প্লে স্টোর থেকে “সুরক্ষা” অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিবন্ধন করতে পারবেন। বিস্তারিত ওয়েব পোর্টালে “সহায়িকা” দেখুন।

আমি অনলাইনে ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন করেছি, এখন আমার পরবর্তী করনীয় কি?

www.surokkha.gov.bd ওয়েব পোর্টাল হতে ভ্যাকসিন কার্ড সংগ্রহ করুণ। পরবর্তীতে মোবাইল ফোনে SMS এর মাধ্যমে ভ্যাকসিনের তারিখ ও কেন্দ্র জানানো হবে।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন পরবর্তী অবস্থা অনলাইনে কিভাবে যাচাই করব?

www.surokkha.gov.bd ওয়েব পোর্টালে “নিবন্ধন স্ট্যাটাস” মেনু হতে জাতীয় পরিচয়পত্র ও মোবাইল নম্বর যাচাইপূর্বক নিবন্ধনের অবস্থা জানতে পারবেন।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য ভ্যাকসিন কার্ড কিভাবে পেতে পারি?

www.surokkha.gov.bd ওয়েব পোর্টালে “টিকা কার্ড সংগ্রহ” মেনু হতে জাতীয় পরিচয়পত্র ও মোবাইল নম্বর যাচাইপূর্বক ভ্যাকসিন কার্ড সংগ্রহ করতে পারবেন।

ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য কেন্দ্র ও তারিখ সম্পর্কে কিভাবে জানবো?

সফলভাবে ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন সম্পন্ন হওয়ার পর পরবর্তী সময়ে মোবাইল ফোনে SMS এর মাধ্যমে ভ্যাকসিনের তারিখ ও কেন্দ্র জানানো হবে।

কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিনের কয়টি ডোজ গ্রহণ করতে হবে?

কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিনের দুইটি ডোজ গ্রহণ করতে হবে।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সম্পন্ন হওয়ার পর ভ্যাকসিন সনদ কিভাবে পেতে পারি?

কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিনের দুইটি ডোজ সম্পন্ন হওয়ার পর www.surokkha.gov.bd ওয়েব পোর্টালে “টিকা সনদ সংগ্রহ” মেনু হতে জাতীয় পরিচয়পত্র ও মোবাইল নম্বর যাচাইপূর্বক ভ্যাকসিন সনদ সংগ্রহ করতে পারবেন।

কোভিড-১৯ টিকা কাদের দেওয়া হবে?

জাতীয় কোভিড-১৯ টিকাদান ও কর্ম পরিকল্পনা অনুসারে অগ্রাধিকার ভিত্তিক তালিকা অনুযায়ী সকলকে টিকা দেয়া হবে।

একজন প্রশ্ন করলেন, আমার দাদার বয়স ৭০ বছর কিন্তু প্যারালাইজড বিছানা থেকে উঠতে পারেন না, কীভাবে আমার দাদা টিকা পাবে?

কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমে সেবাদান কেন্দ্রভিত্তিক, তাই উদ্দিষ্ট ব্যক্তিকে টিকাদান কেন্দ্রে এসে টিকা গ্রহণ করতে হবে।

এই ক্যাম্পেইনে কাদের টিকা দেওয়া যাবে না?

রেজিস্ট্রেশনকৃত/লাইন লিস্টিং-এর অর্ন্তভুক্ত তালিকার উদ্দিষ্ট জনগোষ্ঠী ছাড়া অন্য কোনো ব্যক্তিকে কোভিড টিকা দেয়া যাবে না। ১৮ বছরের নীচে, গর্ভবতী মা এবং দুগ্ধদানকারী মা, অসুস্থ ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ব্যক্তি। পরবর্তীতে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নির্ধারিত টিকাদান কেন্দ্র থেকে টিকা নিতে অনুরোধ করতে হবে। ব্যক্তির ইচ্ছার বিরুদ্ধে টিকা দেয়া যাবে না।

একজন প্রশ্ন করলেন, গর্ভবর্তী মহিলা কি এই টিকা পাবে?

গর্ভবতী মহিলাদের আপাতত কোভিড-১৯ টিকা প্রদান করা হবে না।

এনআইডি কার্ড হারিয়ে গেছে কীভাবে রেজিস্ট্রেশন করব?

এনআইডি বা জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে অননাইন রেজিস্ট্রেশনে অর্ন্তভুক্ত করে এই কোভিড-১৯ টিকার আওতায় আনা হবে। কোভিড-১৯ টিকা পর্যায়ক্রমে সকলকেই দেয়া হবে। তাই পরবর্তীতে এনআইডি বা জাতীয় পরিচয়পত্রসহ আসুন।

টিকাদান কার্ড আনি নাই, মোবাইলে কোনো তথ্য দেখা যাচ্ছে না; এখন কী করব?

টিকাদানকর্মী তাঁকে কার্ডটি পুনরায় প্রিন্ট করে নিয়ে আসতে অনুরোধ করবেন

ইতোমধ্যে কোভিড-১৯ হয়েছিল। চিকিৎসার পর ভালো হয়েছে, কোভিড-১৯ টিকা পাব?

অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তালিকাভুক্ত হলে কোভিড-১৯ টিকা প্রদান করা হবে।

২৮ বছর বয়সী ৫ মাসের গর্ভবতী। সে কোভিড হাসপাতালে চাকরি করে; কোভিড-১৯ টিকা পাবে?

গর্ভবতী মহিলাদের উপর কোভিড-১৯ টিকার প্রভাব নিশ্চিত না হওয়ায় গর্ভবতী মহিলাদের আপাতত কোভিড-১৯ টিকা প্রদান করা হবে না।

একজন ফ্রর্টলাইন ওয়ার্কার। উনি কাজ শেষে প্রতিদিন বাসায় যান। তাহলে বাসার সবাই কি এই টিকা পাবেন?

শুধু অগ্রাধিকারের তালিকার ভিত্তিতে টিকা প্রদান করা হবে।

টিকাদান চলাকালীন অন্য কেন্দ্রের/এলাকার কোনো ব্যক্তি যদি টিকা নিতে আসে, তবে তাকে টিকা দেওয়া যাবে কিনা?

সে যদি নির্দিষ্ট ঐ তারিখের টিকা প্রাপ্তির তালিকার অর্ন্তভুক্ত হন তবে টিকা দেয়া যাবে। টিকাদানকর্মী অবশ্যই অনলাইনে হালনাগাদ করবেন।

প্রতিদিন প্রেসারের ঔষধ খেতে হয়; টিকা দেওয়া যাবে ?

অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তালিকাভুক্ত হলে কোভিড-১৯ টিকা প্রদান করা হবে।

পনেরো দিন আগে হার্টের অপারেশন হয়েছে; টিকা দেওয়া যাবে কিনা?

সুস্থ হলে এবং অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তালিকাভুক্ত হলে কোভিড-১৯ টিকা প্রদান করা হবে।

এই টিকার কি কোনো পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া রয়েছে?

অন্য সকল ঔষধ কিংবা টিকার মতো এই টিকারও কিছু পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেগুলো খুবই মৃদু হয়ে থাকে যেমন – টিকার স্থানে ব্যথা, ফোলা, লালচে ভাব, মাংশপেশী ও অস্থিসন্ধিতে ব্যথা, দুর্বলতা, বমি বমি ভাব, জ্বর, ক্লান্তি ইত্যাদি। ক্লিনিকাল ট্রায়াল হতে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী এখনও পর্যন্ত মারাত্মক কোন পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানা যায়নি। তবে আপনার যে কোন সমস্যা হলে অবশ্যই দ্রুত নিকটস্থ হাসপাতালে যান এবং চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহন করুন।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন / রেজিস্ট্রেশন সহায়িকা ডাউনলোড

ডাউনলোড

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *